কিংবদন্তি আব্দুল কাদিরের ছেলে পাকিস্তান দলে

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৩৬ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০১৯

সন্তানের সাফল্যের খবরে উদ্বেলিত হন যেকোনো বাবা-মা। কিন্তু নিজের ছেলের জীবনের সবচেয়ে বড় আনন্দের দিনটি সামনে থেকে দেখা হলো না পাকিস্তানের কিংবদন্তি লেগ স্পিনার আব্দুল কাদিরের। গত ৬ সেপ্টেম্বর পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে না ফেরার দেশে চলে গিয়েছেন আব্দুল কাদির।

বাবার মৃত্যুর দেড় মাসের মাথায় প্রথমবারের মতো পাকিস্তান জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন আব্দুল কাদিরের ছেলে উসমান কাদির। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আসন্ন টি-টোয়েন্টি সিরিজের পাকিস্তান দলে তিন নতুন মুখের একজন উসমান কাদির। বাবার মত তিনিও একজন লেগ স্পিনার।

পাকিস্তানি ক্রিকেটার হলেও অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ টুর্নামেন্টে খেলে সর্বপ্রথম আলো কেড়েছিলেন উসমান। পার্থ স্কর্চার্সের হয়ে দারুণ এক টুর্নামেন্টই কাটিয়েছিলেন তিনি। এছাড়া অস্ট্রেলিয়ার লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটের ঘরোয়া টুর্নামেন্টেও খেলেছেন ভিক্টোরিয়ার হয়ে। আর সবশেষ সেন্ট্রাল পাঞ্জাবের হয়ে খেলেছেন ঘরের মাঠে হওয়া ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপে।

এখনও পর্যন্ত ১০টি প্রথম শ্রেণির, ২১টি লিস্ট ‘এ’ ও ২৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। যেখানে সবচেয়ে বেশি সফল টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটেই। ২৩টি ম্যাচে ২৬ বছর বয়সী এ লেগ স্পিনারের শিকার ৩৬ উইকেট। এছাড়া প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১১ ও লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে তিনি দখল করেছেন ২১টি উইকেট।

তবে মূলত ঘরের মাঠে হওয়া ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপের পারফরম্যান্স দিয়েই নজর কেড়েছেন জাতীয় দলের নতুন কোচ ও প্রধান নির্বাচক মিসবাহ উল হকের। যে কারণে সুযোগ পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়া সফরের টি-টোয়েন্টি দলে।

উসমান ছাড়াও অস্ট্রেলিয়ার সফরের টি-টোয়েন্টি দলে প্রথমবারের মতো ডাক পেয়েছেন মোহাম্মদ মুসা এবং খুশদিল শাহ। এদের মধ্যে মুসা সুযোগ পেয়েছেন টেস্ট দলেও। এছাড়া দীর্ঘ পরিসরের ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো ডাক পাওয়া অন্য দুই ক্রিকেটার হলেন বাঁহাতি স্পিনার কাশিফ ভাট্টি এবং তরুণ ফাস্ট বোলার নাসিম শাহ।

আগামী ৩ নভেম্বর সিডনিতে মাঠে গড়াবে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি। এরপর ক্যানবেরায় ৫ নভেম্বর ও পার্থে ৮ নভেম্বর হবে বাকি দুই ম্যাচ। সফরের টেস্ট দুইটি হবে ব্রিসবেনে ২১ তারিখ ও অ্যাডিলেডে ২৯ তারিখ।

অস্ট্রেলিয়া সফরে পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড
বাবর আজম (অধিনায়ক), আসিফ আলি, ফাখর জামান, হারিস সোহেল, ইফতিখার আহমেদ, ইমাদ ওয়াসিম, ইমাম উল হক, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ আমির, মোহাম্মাদ হাসনাইন, মোহাম্মদ ইরফান, মোহাম্মদ রিজওয়ান, মুসা খান, শাদাব খান, ওসমান কাদির ও ওয়াহাব রিয়াজ।

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]