বিসিবির সঙ্গে আলোচনায় বসেছেন ক্রিকেটাররা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৫০ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৯

নানা জল্পনা-কল্পনার পর অবশেষে বিসিবি কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছেন আন্দোলনকারী ক্রিকেটাররা। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বিসিবি অফিসে আলোচনার জন্য সমবেত হন ক্রিকেটাররা। এরপর সবাই মিলে হাজির হন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের কক্ষে। সেখানেই আন্দোলনকারী ক্রিকেটারদের সঙ্গে আলোচনায় বসেন বিসিবি কর্মকর্তারা।

রাত ৯টার কিছুক্ষণ পর বিসিবিতে সবার আগে আসেন সাকিব আল হাসান। এর কয়েক মিনিটের মধ্যেই উপস্থিত হন তামিম ইকবাল। এরপর একে একে উপস্থিত হন জাতীয় দল, জাতীয় লিগ, প্রিমিয়ার ডিভিশন লিগ কিংবা প্রথম বিভাগে খেলা ক্রিকেটাররাও। প্রায় ৬০ থেকে ৭০ জন ক্রিকেটার একযোগে এসে উপস্থিত হন বিসিবি কার্যালয়ে।

গুলশানে সিক্স সিজন্স হোটেলে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন শতাধিক ক্রিকেটার। সেখান থেকে প্রায় সব ক্রিকেটারই আলোচনার জন্য এসে উপস্থিত হন বিসিবি কার্যালয়ে। ভিন্ন অর্থে দেখলে, মিরপুরে যেন সব ধরনের ক্রিকেটের মিলনমেলা বসেছে আজ।

সোমবার আন্দোলনের শুরুতে ১১ দফা দাবি নিয়ে ধর্মঘটের আহ্বান করেন ক্রিকেটাররা। এরপর আজ আবারও একই দাবি উত্থাপন করেন তারা। তবে সঙ্গে যোগ করেন আরও দুটি দাবি। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সিক্স সিজন্স হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে ক্রিকেটাররা জানিয়ে দেন, একটি চিঠির মাধ্যমে বিসিবির কাছেও আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের দাবিগুলো পাঠানো হয়েছে।

খেলোয়াড়দের হয়ে মুখপাত্র হিসেবে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। তিনিই জানিয়েছেন, আজ বিকেলে চিঠি পাঠানো হয়েছে বিসিবিতে। সংবাদ সম্মেলনের পরই আরও এক দফা বৈঠক করে বিসিবির সঙ্গে আলোচনার সিদ্ধান্ত নেন ক্রিকেটাররা। এরপরই তারা হাজির হন বিসিবি কার্যালয়ে।

এআরবি/আইএইচএস/পিআর