ওয়ার্নার ১০০* অস্ট্রেলিয়া ২৩৩ শ্রীলঙ্কা ৯৯

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১৭ পিএম, ২৭ অক্টোবর ২০১৯

অনুশীলনে প্রায়ই মজার ছলে 'ওয়ান টু ওয়ান' অর্থাৎ একজনের বিপক্ষে একজনের এক-দুই ওভারের মিনি ম্যাচ খেলে থাকেন ক্রিকেটাররা। যেখানে নির্দিষ্ট সংখ্যক ওভারে বেশি রান করা খেলোয়াড়ই হন জয়ী। সারা বিশ্বে সব দলের অনুশীলনেই এমন ম্যাচ নিয়মিত একটি ব্যাপার।

এবার এ বিষয়টিকে যেন আন্তর্জাতিক ম্যাচে নিয়ে এলেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। তার একার করা ১০০* রানের ইনিংসটিকেই টপকাতে পারেনি পুরো শ্রীলঙ্কা দল মিলে। নির্ধারিত ২০ ওভারে ইনিংস থেমেছে ৯ উইকেট হারিয়ে ৯৯ রানে।

নিজের ৩৩তম জন্মদিনটিকে রাঙিয়ে রাখার পথে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিটি হাঁকান ওয়ার্নার। সঙ্গে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও অ্যারন ফিঞ্চ ঝড়ো ফিফটি করলে অস্ট্রেলিয়া পায় ২৩৩ রানের বিশাল সংগ্রহ।

পরে লঙ্কানরা ৯৯ রানে থেমে গেলে নিজেদের টি-টোয়েন্টি ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ব্যবধানে ১৩৪ রানের জয় পায় অস্ট্রেলিয়া। এর আগে গত বছর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১০০ রানের জয়টিই ছিল অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে বড় জয়ের রেকর্ড।

২৩৪ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে একবারের জন্যও মনে হয়নি ম্যাচটি জেতার পথে আছে শ্রীলঙ্কা। শুরু থেকেই তাদের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে থাকে অস্ট্রেলিয়ান বোলাররা। সর্বোচ্চ ১৭ রান করেন দাসুন শানাকা।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ৩টি উইকেট নেন অ্যাডাম জাম্পা। এছাড়া মিচেল স্টার্চ ও প্যাট কামিনস নেন ২টি করে উইকেট।

এর আগে টস জিতে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকেই ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায় শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গা। ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতেই লঙ্কানদের ব্যাকফুটে ঠেলে দেয় অস্ট্রেলিয়া। ওপেনার এবং অধিনায়ক অ্যারোন ফিঞ্চ ডেভিড ওয়ার্নারকে নিয়ে রীতিমত ঝড় তোলেন।

১০.৫ ওভারেই তারা গড়ে ফেলেন ১২২ রানের জুটি। এ সময় ৩৬ বলে ৬৪ রান করে আউট হন ফিঞ্চ। ৮টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৩টি ছক্কার মার মারেন তিনি। এরপর মাঠে নামেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ওয়ার্নারের সঙ্গে তিনি গড়েন ১০৭ রানের আরো একটি বড় জুটি।

১৯.৩ ওভারে যখন ম্যাক্সওয়েল আউট হন, তখন দলীয় রান ২২৯। ২৮ বলে ৬২ রানের ঝড় তুলে আউট হন ম্যাক্সওয়েল। ৭টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৩টি ছক্কার মার মারেন তিনি। ম্যাক্সওয়েলের পর মাঠে নামেন অ্যাস্টন টার্নার। ১ বলে ১ রান করে থাকেন অপরাজিত।

ডেভিড ওয়ার্নার ৫৬ বলে ১০০ রান করে অপরাজিত থাকেন। ১০টি বাউন্ডারির সঙ্গে ছক্কার মার মারেন তিনি ৪টি। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ২৩৩ রান তোলে অস্ট্রেলিয়া। শ্রীলঙ্কার হয়ে ১টি করে উইকেট নেন লক্ষ্মণ সান্দাকান এবং দাসুন সানাকা।

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]