অঘোষিত ফাইনাল ম্যাচে পরিবর্তন আসছে টাইগার একাদশে!

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১০:০৯ এএম, ১০ নভেম্বর ২০১৯

ম্যাচের আগের সংবাদ সম্মেলনে হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর কথায় আভাস মিলেছিল, হয়তো প্রথম দুই ম্যাচের অপরিবর্তিত একাদশ নিয়েই শেষ ম্যাচটি খেলতে নামবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তবে অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে অন্তত ২টি পরিবর্তন আনতেই হবে টাইগার একাদশে। দুটিতেই অবশ্য রয়েছে ইনজুরির থাবা।

শনিবার দলের সঙ্গে অনুশীলন করেননি প্রথম দুই ম্যাচের একাদশে থাকা অফস্পিনিং অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত এবং বাঁহাতি পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। দলের সঙ্গে অনুশীলনের শুরুতে মোস্তাফিজ রানিং করলেও মোসাদ্দেক ড্রেসিংরুম থেকে নিচে নামেননি।

কুচকির চোটে বিশ্রামে ছিলেন এ স্পিনিং অলরাউন্ডার। অন্যদিকে গোড়ালির পুরনো সমস্যা বাড়ায় অনুশীলনে ছিলেন না মোস্তাফিজ। রোববার শেষ টি-টোয়েন্টিতে তাদের দুজনকে পাওয়া যাবে কি না- তাৎক্ষণিকভাবে তা নিশ্চিত করতে পারেনি দল সংশ্লিষ্ট কেউ।

তবে দুজনের কারোই একাদশে থাকা নিয়ে ছিলো না কোনো সংশয়। ইনজুরিজনিত সমস্যা না দেখা দিলে এ প্রশ্নও উঠতো না। কিন্তু মোসাদ্দেকের কুচকির চোট ভাবাচ্ছে টিম ম্যানেজম্যান্টকে। শেষপর্যন্ত তার জন্য অপেক্ষা করবে দল। ফিজিও সবুজ সংকেত দিলেই কেবল আজকের (রোববার) অঘোষিত ফাইনাল ম্যাচে দেখা যেতে পারে মোসাদ্দেককে।

অন্যথায় পুরো সিরিজে প্রথমবারের মতো সুযোগ পাবেন মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন। এক্ষেত্রে স্পিন বোলিং অপশন একটি কমে যাবে টাইগারদের। তবে দুই ম্যাচে খুব বেশি বল করেননি মোসাদ্দেক। এর মধ্যে আবার দ্বিতীয় ম্যাচে মাত্র ১ ওভারেই হজম করেছেন ২১ রান। তাই ইনজুরির সমস্যা ঠিক না হলে তার বদলে মিঠুনকে দলে নেয়ার কথাই ভাবছে দল।

অন্যদিকে, নাগপুরের উইকেটে স্পিনারদের জন্য রয়েছে বাড়তি সহায়তা। যে কারণে প্রথম দুই ম্যাচের তিন পেসার ফর্মুলা থেকে সরে আসার পরিকল্পনা করছে বাংলাদেশ। সেক্ষেত্রে তাকিয়ে থাকা হচ্ছে মোস্তাফিজের দিকে। তার গোড়ালির সমস্যা ঠিক না হলে, এ জায়গায় ঢুকে পড়তে পারেন বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম।

তবে মোস্তাফিজ খেললেও একাদশে তাইজুলের সুযোগ পাওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। ভারতের ব্যাটিং লাইনআপে বাঁহাতিদের আধিক্য থাকায় প্রথম দুই ম্যাচে অফস্পিনারদের ওপর জোর দিয়েই বোলিং লাইনআপ সাজিয়েছিল বাংলাদেশ। সেই সুযোগে দ্বিতীয় ম্যাচে ছড়ি ঘুরিয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

তাকে আটকানোর জন্য এবং অফস্পিনার আফিফ হোসেন ধ্রুব ও লেগস্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লবের সঙ্গে একজন বাঁহাতি স্পিনারের বৈচিত্রময় আক্রমণ সাজানোর জন্যই মূলত তাইজুলকে দলে নেয়ার কথা ভাবছে টিম ম্যানেজম্যান্ট। সেক্ষেত্রে মোস্তাফিজ খেললে বাদ পড়বেন শফিউল।

অর্থাৎ এক পেসার ও স্পিনিং অলরাউন্ডারের বদলে টাইগার একাদশে আসতে যাচ্ছেন এক মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান ও এক বাঁহাতি স্পিনার।

সবমিলিয়ে শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ:

লিটন কুমার দাস, নাইম শেখ, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মোহাম্মদ মিঠুন, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, তাইজুল ইসলাম, আলআমিন হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান/শফিউল ইসলাম।

এআরবি/এসএএস/এমএস