রান আটকানোই হবে স্পিনারদের মূল কাজ : ভেট্টরি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:২৩ এএম, ২১ নভেম্বর ২০১৯

ইন্দোরে সিরিজের প্রথম টেস্টে খুব একটা ভালো করতে পারেনি বাংলাদেশ। ব্যাটসম্যানরা দুই ইনিংসেই দিয়েছে ভয়াবহ ব্যর্থতার পরিচয়। বোলাররাও খুব একটা চাপ প্রয়োগ করতে পারেননি ভারতের ব্যাটসম্যানদের ওপর।

তবে দুই পেসার আবু জায়েদ রাহী ও এবাদত হোসেন খানিক সমীহ আদায় করলেও, দুই স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ ও তাইজুল ইসলামকে মুড়িমুড়কির মতো খেলেছেন ভারতের ব্যাটসম্যানরা। দুজন মিলে ৫৫ ওভার বোলিং করে উইকেট নিতে পেরেছেন মাত্র ১টি।

এর চেয়ে বড় বিষয় হলো টেস্ট ম্যাচেও দুই স্পিনার রান বিলিয়েছেন ওয়ানডের মতো। মিরাজের ইকোনমি রেট ছিলো ৪.৬২, তাইজুল খরচ করেছেন ওভার ৪.২৮ করে। মায়াঙ্ক আগারওয়াল, আজিঙ্কা রাহানেরা যেনো স্পিনার এলেই খুশি হচ্ছিলেন, সহজে রান করতে পারবেন ভেবে।

অথচ ভারতের দুই স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও রবিন্দ্র জাদেজা ঠিকই সমীহ আদায় করেছিলেন। দুই ইনিংসে নিয়েছেন ৫টি উইকেট, সবকয়টিই অশ্বিনের ঝুলিতে। উইকেট না পেলেও দুই ইনিংসে রান আটকে রেখে সঙ্গী বোলারকে চাপ সৃষ্টি করার সুযোগ করে দিয়েছিলেন জাদেজা।

কিন্তু বাংলাদেশের স্পিনাররা সেটিও করতে পারেননি। দিনে হওয়া ইন্দোরের ম্যাচেই যেখানে বড্ড বিবর্ণ ছিলো স্পিনাররা, সেখানে দিবারাত্রির ইডেন টেস্টে তাদের নিয়ে আশা করাটা বেশ কঠিনই বটে। এই বাস্তবতা মেনে নিয়েছেন স্পিন কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টরিও। তাই স্পিনারদের কাছ থেকে তার চাওয়াটা খুব বেশি নয়।

যেহেতু সূর্যাস্তের পর থাকবে শিশিরের দৌরাত্ম্য, তাই স্পিনারদের চেয়ে পেসারের ওপরেই বেশি ভরসা করতে চান ভেট্টরি। আর এক্ষেত্রে রান আটকে রেখে পেসারদের সাহায্য করাই হবে স্পিনারদের মূল কাজ, এমনটাই মানছেন টাইগাদের স্পিন কোচ।

বুধবার অনুশীলনের ফাঁকে ভেট্টরি বলেন, ‘গোলাপি বলের টেস্টেও স্পিনাররা বড় ভূমিকা রাখতে পারে। তবে সেই ভূমিকা এখানে ভিন্ন হবে। সূর্যাস্ত এখানে দ্রুত হয়ে যায়। বাড়তি একজন পেসারের সঙ্গে স্পিনারদের মূল কাজ হবে এখানে রান আটকে রাখা।’

নিজের মন্তব্যের প্রতি যুক্তি দিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘নিজেদের দেশে স্পিনাররা যেমন আধিপত্য বিস্তার করে, তেমনটা ভারতে করতে পারবে না। বরং এখানে তাদের ভাবা উচিৎ প্রথম ইনিংসে ৬০/৭০ রানে ২ উইকেট নেনা এবং অপেক্ষা করা যে দ্বিতীয় ইনিংসে পিচটা কেমন হয়। আমার মনে হয় এটাই সঠিক পরিকল্পনা।’

এসময় ভারতের মাটিতে স্পিনারদের চ্যালেঞ্জের কথা মনে করিয়ে দিয়ে ভেট্টরি বলেন, ‘গত ৩-৪ বছরে বাইরের দেশের স্পিনাররা ভারতে খেলতে এসে অনেক চাপের মুখে পড়েছে। এর কারণটা মূলত উইকেটের আচরণ এবং স্পিনারদের প্রতি চাহিদা। একইসঙ্গে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের স্কিল। আমরা দেখেছি প্রথম ম্যাচে মায়াঙ্ক ও আজিঙ্কা কতটা চাপে রেখেছিল আমাদের স্পিনারদের। ইন্দোরে ভালো উইকেটে এর বিপক্ষে খুব বেশি কিছু করার ছিল না। আমার মনে হয় এখানেও (ইডেন) একই অবস্থা থাকবে।’

এসএএস/জেআইএম