২০২১ সালের আইপিএলেও খেলবেন ধোনি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৪০ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০২০

ভারতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে মহেন্দ্র সিং ধোনির ক্যারিয়ার প্রায় শেষই বলা চলে। ২০১৯-২০ মৌসুমের জন্য ঘোষিত ক্রিকেট বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে ২৭ জন ক্রিকেটারের মধ্যেও রাখা হয়নি ধোনিকে। বোর্ডের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবেও দেয়া হয়নি কোনো বার্তা।

তবে জাতীয় দলের হেড কোচ রবি শাস্ত্রী জানিয়েছেন, এবারের আইপিএলে ভালো পারফরম্যান্স করতে পারলে ধোনিকে রাখা হবে বিশ্বকাপের বিবেচনায়। যদিও আইপিএলে ধোনির সতীর্থ ও ভারতের সাবেক স্পিনার হরভজন সিং সংশয় প্রকাশ করেছেন, আইপিএলে যতো ভালোই করুক না কেন, আর কখনও জাতীয় দলের হয়ে খেলতে পারবেন না ধোনি

জাতীয় দলে খেলার সুযোগ আসুক বা না আসুক, এক বছর আগেই ২০২১ সালের আইপিএলে খেলার নিশ্চয়তা পেয়ে গেছেন ৩৮ বছর বয়সী ধোনি। চেন্নাই সুপার কিংসের ভাইস চেয়ারম্যান এন শ্রীনিবাসন সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, আইপিএলের ২০২১ সালের আসরেও ধোনিকে দলে রাখবেন তারা।

শ্রীনিবাসন বলেন, ‘মানুষ যতোই বলুক না কেন, ধোনি কবে (অবসর নেবে)... আর কতদিন খেলবে, ইত্যাদি ইত্যাদি। আমি নিশ্চিত করছি, সে খেলবে। সে এ বছরের আইপিএলে খেলবে। আগামী বছর হয়তো নিলামে তার নাম যাবে। কিন্তু আমরা তাকে রেখে (রিটেনশন) দেবো দলে। তাই কারও মনে এ নিয়ে সন্দেহ থাকার উপায় নেই।’

আইপিএলে সেই ২০০৮ সাল থেকে চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক হিসেবে খেলছেন ধোনি। তার অধীনে ৩ বার শিরোপা জিতেছে চেন্নাই। এছাড়া আরও পাঁচবার হয়েছে রানারআপ। এছাড়া তিনি ২০১০ এবং ২০১৪ সালের চ্যাম্পিয়নস লিগ টি-টোয়েন্টির শিরোপাও জিতিয়েছেন চেন্নাইকে। তাই ধোনিকে এখনই ছেড়ে দেয়ার পক্ষে নয় চেন্নাই ফ্র্যাঞ্চাইজি।

বয়সের কাঁটা ৩৮ ছুঁয়ে গেলেও এখনও খেলে যাচ্ছেন ধোনি। যদিও ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের পর আর ভারতের হয়ে মাঠে নামার হয়নি তার। এ সময়ের মধ্যে জাতীয় দলের বিবেচনাতেও ছিলেন না তিনি। তার জায়গায় গড়ে তোলা হচ্ছে তরুণ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান রিশাভ পান্তকে।

এসএএস/পিআর