এবার নির্বাচক নির্বাচন করবে ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৬ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০২০

আগামী এক বছর কারা থাকবেন ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলে, কাদের গুরুত্ব দিয়ে গড়া হবে ভারতের স্কোয়াড- সেই কেন্দ্রীয় চুক্তির তালিকা ঘোষণা করা হয়েছে কিছুদিন আগেই। কিন্তু কারা নির্বাচন করবেন দলের স্কোয়াড- সেই নির্বাচকদের ব্যাপারে এখনও অন্ধকারে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)।

মূলত ক্রিকেট অ্যাডভাইজরি কমিটি (সিএসি) গঠনের জন্য অপেক্ষা করছে বিসিসিআই। তবে এই কমিটি গঠনের আগেই নির্বাচকের খোঁজে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে ভারতের ক্রিকেট বোর্ড। আবেদনের ভিত্তিতে জাতীয় পুরুষ ক্রিকেট দল, জাতীয় নারী ক্রিকেট দল ও যুব ক্রিকেট দলের জন্য নির্বাচক নির্বাচন করবে বোর্ড।

আগামী ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত নির্বাচক পদের জন্য আবেদন করা যাবে। জাতীয় পুরুষ দলের জন্য দুইজন, জাতীয় নারী দলের জন্য পাঁচজন এবং যুব ক্রিকেট দলের জন্য দুইজন নির্বাচক নিয়োগ দেয়া হবে এ দফায়।

নির্বাকচক হতে আগ্রহীদের জন্য কিছু চাহিদার কথা উল্লেখ করা হয়েছে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে। আগ্রহী প্রার্থীদের অন্তত ৫ বছর আগে ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়া হতে হবে। পুরুষ দলের জন্য আগ্রহীদের অন্তত ৭টি টেস্ট অথবা ৩০টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ অথবা ১০টি ওয়ানডের সঙ্গে ২০টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

নারী ক্রিকেট দলের নির্বাচক পদে আগ্রহীদের অবশ্যই ভারতীয় নারী ক্রিকেট দলের সাবেক ক্রিকেটার হতে হবে। আর যুব ক্রিকেট দলের জন্য যোগ্যতার মানদণ্ড ধরা হয়েছে অন্তত ২৫টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা।

২০১৬ সালে পাঁচ জোন থেকে সদস্য বাছাইয়ের মাধ্যমে করা প্রক্রিয়া বাদ দিয়ে প্রথমবারের মতো ইন্টারভিউয়ের ভিত্তিতে নির্বাচক নিয়োগ দিয়েছিল বিসিসিআই। সেবার প্রসাদ ও গগনের সঙ্গী হয়েছিলেন স্মরণদীপ সিং, দেবাং গান্ধী এবং জোতিন পারানপি। সবচেয়ে অভিজ্ঞ হওয়ায় এই প্যানেলের নেতৃত্ব দেয়া হয়েছিল এমএসকে প্রসাদকেই।

ভারতের বর্তমান নির্বাচক কমিটির সদস্য এমএসকে প্রসাদ এবং গগন খোদা মূলত তাদের চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর কারণে দায়িত্বে রয়েছে। তাদের ৪ বছরের প্রাথমিক চুক্তির মেয়াদ ছিলো ২০১৯ সালের নভেম্বর পর্যন্ত। প্রসাদ ও গগনকে নির্বাচক পদে বসানো হয়েছিল ২০১৫ সালে। এবার তাদের বর্ধিত মেয়াদের চুক্তিও শেষের পথে।

প্রসাদের নেতৃত্বাধীন নির্বাচক প্যানেল তাদের সবশেষ স্কোয়াড ঘোষণা করেছে জানুয়ারির ১২ তারিখে। নিউজিল্যান্ড সফরে পাঁচ টি-টোয়েন্টি, তিন ওয়ানডে ও দুই টেস্ট খেলবে ভারত। তবে এখনও পর্যন্ত শুধুমাত্র টি-টোয়েন্টি সিরিজের দল ঘোষণা করা হয়েছে। বাকি দুই সিরিজের ব্যাপারে কোনো তথ্য জানানো হয়নি।

এসএএস/পিআর