‘গত বছরও গিয়েছি, পাকিস্তানের নিরাপত্তা নিয়ে ভাবছি না’

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৪৬ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০২০

পাকিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি এখন অনেকটা সন্তোষজনক। সম্প্রতি পাকিস্তানের মাটিতে টেস্ট সিরিজ খেলে গেছে শ্রীলঙ্কা দল, যাদের ওপরই ২০০৯ সালে লাহোরে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছিল।

এমন বিভীষিকার স্মৃতি নিয়েও শ্রীলঙ্কা যখন খেলতে গেছে, বাংলাদেশের জন্য তো খবরটা স্বস্তিরই। তারপরও পাকিস্তান বলে কথা! একটু তো নিরাপত্তা শঙ্কা থেকেই যায়। যে শঙ্কা থেকে সফরের আগেই নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন দলের সিনিয়র সদস্য মুশফিকুর রহীম।

পাকিস্তান যতই বলুক, সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেবে। মনের মধ্যে একটু শঙ্কা থাকেই। তবে দীর্ঘদিন পর জাতীয় দলে ফেরা নাজমুল হোসেন শান্ত পাকিস্তানের নিরাপত্তাব্যবস্থা নিয়ে মোটেও ভাবছেন না।

শান্ত মনে করেন, যেটা হাতে নেই, সেটা নিয়ে ভাবার মানেও হয় না। তার ভাষায়, ‘না, এগুলো নিয়ে আসলে চিন্তা করছি না। পেশাদার খেলোয়োড় হিসেবে খেলাটাকে ফোকাস করছি। এটা যেহেতু আমাদের হাতে নেই, সেহেতু এগুলো নিয়ে চিন্তা করছি না। একবারও ভাবিনি। গত বছর গিয়েছিলাম আমি ওখানে। তাই এগুলো নিয়ে একদমই ভাবছি না। খেলাটাই ফোকাস করছি।’

ইমার্জিং বাংলাদেশ দলের হয়ে গত বছর পাকিস্তানে খেলে এসেছেন শান্ত। সেই সময় পরিবেশ ভালোই দেখে এসেছেন। গতবার কোনো সমস্যা হয়নি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘না, ঐখানে সবসময় পরিবেশ অনেক ভালো ছিল। গত বছর আমরা যখন গিয়েছিলাম, খুব বেশি আমাদের ওরকম সমস্যা হয়নি।’

তবে পাকিস্তানের মাটিতে খেলা চ্যালেঞ্জিং, মানছেন শান্ত। তাই তো মুখে এমন কথা, ‘অবশ্যই চ্যালেঞ্জিং। কিন্তু দল হিসেবে যদি খেলতে পারি ইনশাআল্লাহ ওখানেও ভালো রেজাল্ট করা সম্ভব। যদিও আমরা খুব বেশি ওদের টিম নিয়ে চিন্তা করছি না। আমাদের নিজেদের যে প্ল্যান শক্তির জায়গা যদি ঠিক রাখতে পারি, তবে ওখানেও ভালো করা সম্ভব বলে আমি মনে করি।’

ভিনদেশি উইকেটে কোনো প্রস্তুতি ম্যাচ ছাড়াই খেলতে নামা প্রসঙ্গে শান্ত বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয় না খুব সমস্যা হবে। কারণ আমরা সবাই খেলার মধ্যেই আছি। বিপিএলে ম্যাক্সিমাম সবাই খেলে পারফর্ম করেছে মোটামুটি। তাই প্রস্তুতির ব্যাপারটায় আমার মনে হয় যে, সবাই খুব ভালো টাচে আছে। প্রস্তুতি ম্যাচ হচ্ছে না এটা নিয়ে খুব বেশি একটা সমস্যা হবে না।’

এমএমআর/জেআইএম