তামিম-সাইফকে হারিয়ে চাপে বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:৩৯ পিএম, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

রাওয়ালপিন্ডি টেস্টের তৃতীয় দিনের প্রথম দুইটা সেশন বেশ ভালোভাবেই কাটালো বাংলাদেশ। বোলাররা মাত্র ১০৩ রান দিয়েই তুলে নিয়েছে পাকিস্তানের শেষ ৭ উইকেট।

তবে বোলারদের এই সাফল্য কাজেই লাগাতে পারছে না ব্যাটসম্যানরা। ২১২ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে দ্রুতই দুই ওপেনার সাইফ হাসান এবং তামিম ইকবালকে হারিয়েছে বাংলাদেশ। যার ফলে এখন ইনিংস পরাজয়ের শঙ্কাও উঁকি দিচ্ছে বাংলাদেশ শিবিরে।

এ রিপোর্ট লেখার সময় তৃতীয় দিনে তৃতীয় সেশনে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। এরই মধ্যে ২০.৫ ওভার শেষে বাংলাদেশের রান ২ উইকেট হারিয়ে ৫৯। ৫ রান নিয়ে ব্যাট করছেন নাজমুল হাসান শান্ত এবং এখনও রানের খাতাই খুলতে পারেননি অধিনায়ক মুমিনুল হক সৌরভ। পাকিস্তানের প্রথম ইনিংসের চেয়ে এখনও পিছিয়ে বাংলাদেশ, ১৫৩ রান।

২১২ রানের বড় ব্যবধানে পিছিয়ে থাকার পর ব্যাট করতে নেমে এমনিতেই মানসিক একটা চাপে ছিল বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। সেই চাপটাই সম্ভবত কাটাতে পারেননি সাইফ হাসান। ৩৯ রানের জুটি গড়ার পর বিদায় নেন সাইফ হাসান। ২৫ বল মোকাবেলা করে মাত্র ১৬ রান করেন তিনি।

তামিম ইকবাল ঝড়ো গতিতে কিছু রান তোলার চেষ্টা করেন। তবে, সাইফ আউট হওয়ার পর তিনিও কিছুটা থমকে দাঁড়ান। শেষ পর্যন্ত ইয়াসির শাহ’র ঘূর্ণিতে বিভ্রান্ত হয়ে লেগ বিফোর উইকেট হয়ে যান তিনি। ততক্ষণে ৫৬ বলে ৩৪ রান করেন তিনি।

প্রথম ইনিংসে ৩ রান করে আউট হওয়ার পর মনে হচ্ছিল, এই ইনিংসে নিজের নামের প্রতি কিছুটা সুবিচার করবেন। কিন্তু তার সম্ভাবনাময়ী ইনিংসটা প্রস্ফুটিত হওয়ার আগেই ঝরে গেলো।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ অলআউট হয়েছিল ২৩৩ রানে। জবাবে পাকিস্তান প্রথম ইনিংসে সংগ্রহ করে সব ক’টি উইকেট হারিয়ে ৪৪৫ রান। ২১২ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট শুরু করে বাংলাদেশ।

আইএইচএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]