২২২ রান করেও ইংল্যান্ডের কাছে হারলো দক্ষিণ আফ্রিকা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:১১ পিএম, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ। এ কারণে এটাকে বলা হচ্ছিল অঘোষিত ফাইনাল। এমন ম্যাচে ২২২ রান করার পর দক্ষিণ আফ্রিকার জয়ই অনেকে ধরেই নিয়েছিল।

কিন্তু ইংল্যান্ডের ঝড়ো ব্যাটিংয়ের সামনে এই ২২২ রানের বিশাল চ্যালেঞ্জও টিকলো না। ৫ উইকেটে ইংল্যান্ডের কাছে হেরে গেলো স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা এবং একই সঙ্গে সিরিজও হারলো তারা ২-১ ব্যবধানে।

২০তম ওভারের প্রথম বলে আন্দিল পেহলুকাইয়োকে বাউন্ডারি মেরে ইংল্যান্ডকে জয় এনে দেন মইন আলি। অর্থ্যাৎ ৫ বল হাতে রেখেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। প্রথম ম্যাচে জিতেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। দ্বিতীয় ম্যাচে ২০২ রান করে হেরেছিল প্রোটিয়ারা। তৃতীয় এবং শেষ ম্যাচে ২২২ রান করেও জিততে পারলো না স্বাগতিকরা।

মূলতঃ শেষ মুহূর্তে ইয়ন মরগ্যানের ঝড়ো ব্যাটিংয়েই জয় পায় ইংল্যান্ড। ২১ বলে ৭টি বিশাল ছক্কার মারে তিনি পৌঁছান হাফ সেঞ্চুরির মাইলফলকে। ২২ বলে ৫৭ রান করে অপরাজিত থাকেন মরগ্যান। ২ বলে ৫ রান করেন মইন আলি।

মরগ্যানের আগে ঝড়ো হাফ সেঞ্চুরি করেন জস বাটলার এবং জনি বেয়ারেস্ট। ২৯ বলে ৫৭ রান করেন বাটলার। ৯টি বাউন্ডারির সঙ্গে ২টি ছক্কার মার মারেন তিনি। ৩৪ বলে সর্বোচ্চ ৬৪ রান করেন জনি বেয়ারেস্ট। ৭টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৩টি ছক্কার মার মারেন তিনি। এছাড়া ১২ বলে ২২ রান করে আউট হন বেন স্টোকস।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে লুঙ্গি এনগিদি নেন ২ উইকেট। ১টি করে উইকেট নেন আন্দিল পেহলুকাইয়ো, তাবরিজ শামসি এবং ডোয়াইনে প্রিটোরিয়াস।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেট হারিয়ে ২২২ রান সংগ্রহ করে দক্ষিণ আফ্রিকা। হেনরিক্স ক্লাসেন ৩৩ বলে করেন ৬৬ রান। ২৪ বলে ৪৯ রান করেন টেম্বা বাভুমা। ২০ বলে ৩৫ রানে অপরাজিত থাকেন ডেভিড মিলার ও কুইন্টন ডি কক ২৪ বলে করেন ৩৫ রান।

আইএইচএস