আইসিসির সিদ্ধান্ত ‘অরুচিকর’ লাগছে সাঙ্গাকারার

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৩৮ পিএম, ৩১ মে ২০২০

করোনা সহসাই বিদায় হচ্ছে না। তাই প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের মধ্যেই বিশ্বজুড়ে সব কিছু স্বাভাবিক করার প্রচেষ্টা চলছে। ক্রিকেটও মাঠে ফিরছে। তবে ঝুঁকি কমাতে খেলার মধ্যে একগাদা গাইডলাইন (নির্দেশিকা) বেঁধে দিয়েছে আইসিসি।

যে গাইডলাইনের মধ্যে আছে প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা নিয়োগ করা, ম্যাচের আগে খেলোয়াড়দের ১৪ দিনের আইসোলেশন ক্যাম্প, বলে লালা লাগানোয় নিষেধাজ্ঞা, আম্পায়ারের জন্য বাধ্যতামূলক গ্লাভসসহ অনেক কিছু।

এত বিধি নিষেধের মধ্যে ক্রিকেট খেলাটা ‘খুব অদ্ভূত’ এবং ‘অরুচিকর’ লাগবে বলেই মনে করেন শ্রীলঙ্কার কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান এবং ক্রিকেটের আইন প্রণয়নকারী সংস্থা এমসিসির প্রেসিডেন্ট কুমার সাঙ্গাকারা। তবে তিনি এও মেনে নিচ্ছেন, এছাড়া আর ভালো অপশন হাতে নেই।

স্টার স্পোর্টসের শো ‘ক্রিকেট কানেক্টেড’-এর সঙ্গে এক সাক্ষাতকারে সাঙ্গাকারা বলেন, ‘আমি বুঝতে পারছি এই নির্দেশিকা মেনে খেলতে গিয়ে খেলোয়াড়দের অনেক বাধার মুখে পড়তে হবে, এটা আসলে খুব অদ্ভূত ব্যাপারই হবে। আমার তো এটা ভাবতেই অরুচিকর লাগছে।’

তবে এখন যে পরিস্থিতি তাতে মেনে নেয়া ছাড়া উপায় নেই বলেই মনে করছেন সাঙ্গা। তার ভাষায়, ‘কিন্তু সবার আগে স্বাস্থ্য এবং সুরক্ষা। এই মুহূর্তে স্বাস্থ্যের কথাই আগে ভাবতে হবে। বিশেষ করে খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাস, খেলা মাঠে ফেরাতে এবং একটা সময় মাঠে দর্শক আনতে হলে এটা দরকার।’

যদি ঠিকমতো এসব পালন করা না যায়, তবে মাঠে খেলা ফেরানোর পর আবারও দুশ্চিন্তা তৈরি হবে বলে শঙ্কা সাঙ্গাকার, ‘যদি নিরাপদ পরিবেশ ও স্বাস্থ্য নিশ্চিত করা না যায়, তবে সন্দেহ আবারও ফিরে আসবে। মনে হবে-আমাদের কি খেলা শুরু করা উচিত, খেলায় ফেরা উচিত? তাই আমাদের অনেক সতর্ক থাকতে হবে। আমাদের বুঝতে হবে এসব নতুন নিয়মগুলো পালন করে যেন নিরাপদ থাকা যায়, যদিও এটা অনেক অনেক বেশি ব্যাপক এবং বিস্তর।’

এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]