এবার জুটি বেঁধে জিমি-ব্রডের ৯০০

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৩০ এএম, ০৮ আগস্ট ২০২০

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের শেষ টেস্টে ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় বোলার হিসেবে ৫০০ টেস্ট উইকেটের মাইলফলকে পৌঁছান ডানহাতি পেসার স্টুয়ার্ট ব্রড। একইসঙ্গে ইংল্যান্ড হয় বিশ্বের দ্বিতীয় দেশ, যাদের কি না রয়েছে টেস্টে ৫০০ উইকেটশিকারি দুজন বোলার। অন্যজন জিমি অ্যান্ডারসন (৫৮৯ উইকেট)।

এক ম্যাচ পরই জিমি-ব্রড মিলে গড়েছেন নতুন কীর্তি। এবার তারা হয়েছেন বিশ্বের দ্বিতীয় জুটি হিসেবে টেস্টে ৯০০ উইকেট শিকারি দুই বোলার। এ কীর্তিতেও তাদের সঙ্গে রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার দুই কিংবদন্তি বোলার শেন ওয়ার্ন এবং গ্লেন ম্যাকগ্রা। তাদের রয়েছে জুটি বেঁধে টেস্টে এক হাজার উইকেট নেয়ার রেকর্ড।

হাজার উইকেটে যাওয়ার আশা বা সম্ভাবনা এখনও শেষ হয়ে যায়নি জিমি-ব্রড জুটির। নিজেদের একসঙ্গে খেলা ম্যাচের উইকেটসংখ্যা চার অঙ্কে নেয়ার পথে আরেক ধাপ এগুলো তারা। পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টেই গড়ে ফেলেছেন জুটি বেঁধে ৯০০ উইকেট শিকারের কীর্তি।

টেস্ট ক্রিকেটে জিমির পথচলা শুরু ২০০৩ সালে আর ব্রডের অভিষেক ২০০৭ সালে। এখনও পর্যন্ত ব্রড খেলেছেন ১৪১ টেস্ট আর জিমির নামের পাশে রয়েছে ১৫৪টি ম্যাচ। তবে দুজনই খেলেছেন এমন ম্যাচের সংখ্যা ১১৮টি, যার শুরুটা হয়েছিল ২০০৮ সাল থেকে। সেই যে এক যুগ আগে শুরু জিমি-ব্রড জুটির। তারাই এখন রাজত্ব চালাচ্ছেন বিশ্ব টেস্ট ক্রিকেটে।

দুজনই খেলেছেন এমন ১১৮ টেস্টে জিমির উইকেটসংখ্যা ৪৭৪টি, সেরা বোলিং ফিগার ৪২ রানে ৭ উইকেট, পাঁচ উইকেট নিয়েছেন ২৪ বার, দশ উইকেট ৩ বার। অন্যদিকে এই ১১৮ ম্যাচে ব্রডের শিকার ৪২৭ উইকেট, সেরা বোলিং ফিগার ৪৪ রানে ৭ উইকেট, ইনিংসে পাঁচ উইকেটে ১৬ বার ও দশ উইকেট নিয়েছেন ৩ বার। তাদের সম্মিলিত উইকেটসংখ্যা ৯০১টি।

এ জুটির চেয়ে বেশি উইকেট রয়েছে কেবল ওয়ার্ন-ম্যাকগ্রা জুটির। দুজনই খেলেছেন এমন ১০৪ টেস্টে তাদের সম্মিলিত শিকার ১০০১ উইকেট। যেখানে ওয়ার্নের অবদান ৫১৩ উইকেট এবং ম্যাকগ্রা শিকার করেছেন ৪৮৮ উইকেট। এই ১০৪ টেস্টে দুজনের পাঁচ উইকেট রয়েছে মোট ৫১ বার।

টেস্ট ক্রিকেটে জুটি বেঁধে ৭০০'র বেশি উইকেট রয়েছে আর মাত্র ২টি জুটির। শ্রীলঙ্কার দুই কিংবদন্তি বোলার মুত্তিয়া মুরালিধরন ও চামিন্দা ভাস একসঙ্গে ৯৫ ম্যাচ খেলে শিকার করেছেন ৮৯৫ উইকেট। ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই কিংবদন্তি কোর্টনি ওয়ালশ ও কার্টলি অ্যামব্রোস একসঙ্গে খেলা ৯৫ ম্যাচে নিয়েছেন ৭৬২টি উইকেট।

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]