বাদ পড়ার ১৭ বছর পর দলে ফেরানোর ইতিহাসও আছে পাকিস্তানের

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:০৮ পিএম, ১৩ আগস্ট ২০২০

ফাওয়াদ আলমকে নিয়ে হইচই। প্রায় ১১ বছর পর পাকিস্তানের টেস্ট একাদশে জায়গা পেয়েছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান, হইচই তো হবেই। কিন্তু ক্রিকেট ইতিহাসে এমন ঘটনা কি এবারই প্রথম?

ইতিহাস ঘাঁটতে গেলে বের হয়ে আসবে, আরও বিস্ময়কর কিছু তথ্য। ফাওয়াদ এই তালিকায় থাকবেন অনেক পেছনে। বিশ্বাস হচ্ছে না তো? পরিসংখ্যান বলছে কিন্তু এমনটাই।

ফাওয়াদ ১১ বছরে মিস করেছেন পাকিস্তানের ৮৮টি টেস্ট। তবে এই তালিকায় সবার ওপরে যিনি, তিনি মিস করেছেন ১৪২টি! সেই ক্রিকেটারও অনেক আগের নন। ইংল্যান্ডের অফস্পিনার গ্যারেথ বেটির সঙ্গেই ঘটেছে এমন ঘটনা।

বেটির এমন ইতিহাসের সঙ্গে জড়িয়ে আছে বাংলাদেশের নামও। ২০০৫ সালে চেস্টার লি স্ট্রিটে টাইগারদের বিপক্ষে টেস্ট খেলে বাদ পড়েছিলেন বেটি। এর প্রায় ১১ বছর পর ২০১৬ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষেই সুযোগ পান, চট্টগ্রাম টেস্টে। মাঝে টেস্ট মিস করেন ১৪২টি।

তবে ম্যাচের হিসেব বাদ দিলে সবচেয়ে বেশি সময় দলের বাইরে থাকার পর সুযোগ পাওয়ার রেকর্ডটি একজন পাকিস্তানির। পাকিস্তানের ইউনিস আহমেদ ১৯৬৯ থেকে ১৯৮৭ সাল পর্যন্ত ১৭ বছরের বেশি সময় ছিলেন উপেক্ষিত। এর ভেতরে দেশের ১০৪টি টেস্ট মিস করেন এই ক্রিকেটার।

বর্তমান প্রজন্মের পরিচিত ক্রিকেটারের মধ্যে দীর্ঘ বিরতিতে টেস্ট দলে জায়গা ফিরে পাওয়াদের মধ্যে আছে দিনেশ কার্তিক, লিয়াম প্লাঙ্কেট, পার্থিব প্যাটেল, টিম পেইনের নামও।

ভারতের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান দিনেশ কার্তিক ২০১০ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে প্রায় ৮ বছরে ৮৭টি টেস্ট মিস করে দলে ফিরেছিলেন। তারই স্বদেশি উইকেটরক্ষক পার্থিব প্যাটেল ২০০৮ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত ৮ বছরে মিস করেন ৮৩টি টেস্ট।

ইংলিশ পেসার লিয়াম প্লাঙ্কেট ২০০৭ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত ৭ বছরে ৮৫ টেস্ট মিস করার পর দলে জায়গা পেয়েছিলেন। তার চেয়েও অবাক করা ঘটনা ঘটেছে টিম পেইনের বেলায়। ২০১০ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ৭ বছরে ৭৮টি টেস্ট মিস করা অসি উইকেটরক্ষক দলে তো জায়গা ফেরত পেয়েছেনই, এখন তিনি অস্ট্রেলিয়া টেস্ট দলের অধিনায়কও।

এমএমআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]