সাকিবকে প্রস্তুতি নিতে বললেন পাপন

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:০৯ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০২০

সাকিব আল হাসান কবে মাঠে ফিরবেন? অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় ভক্ত-সমর্থকরা। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের ওপর দেয়া আইসিসির নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে আগামী ২৮ অক্টোবর। তারপর মাঠে ফিরতে আর বাধা নেই। কিন্তু চাইলেই কি সাকিব হুট করে ফিরতে পারবেন?

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন অবশ্য সাকিবকে শ্রীলঙ্কা সফরে পাওয়ার আশাই করছেন। আজ (শনিবার) মিরপুরে সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘সাকিবের সঙ্গে কী কথা হলো, সেটা বলবো না। যখনই তার নিষেধাজ্ঞা উঠে যাবে তারপরই সে আমাদের সঙ্গে খেলতে পারবে। তখন থেকেই তাকে পাওয়া যাবে। আমরা সবাই অধীরে আগ্রহে বসে আছি কবে সে ফিরবে।’

তবে শর্ত আছে। বাঁহাতি এই অলরাউন্ডার যতই দলের অপরিহার্য সদস্য হোন, এখন তাকে ফিটনেস পরীক্ষা দিয়ে তবেই জায়গা করে নিতে হবে। পাপন সেটাও পরিষ্কার করেই বললেন। বললেন- সাকিব যেন নিজেকে প্রস্তুত রাখেন।

শ্রীলঙ্কার উদ্দেশ্যে টাইগাররা দেশ ছাড়বে ২৪ সেপ্টেম্বর। করোনাকালীন সময়ে কিছু বিধি নিষেধের কারণে সেখানে এক মাসের মতো প্রস্তুতি নেয়ার সময় পাবে তারা। ২৪ অক্টোবর থেকে শুরু সিরিজের প্রথম টেস্ট। অর্থাৎ এই টেস্টে সাকিবের খেলা হচ্ছে না, সেটা নিশ্চিত।

সিরিজের বাকি ম্যাচগুলোতে হয়তো দেখা যেতে পারে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে। কিন্তু তারও তো প্রস্তুতির দরকার আছে! সেই প্রস্তুতিটা কিভাবে হবে? আইসিসির শর্ত অনুযায়ী, নিষেধাজ্ঞা চলার সময় বোর্ডের কোনো প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত হতে পারবেন না সাকিব। পাপনও সেটা জানেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের কিছুর সঙ্গে সে থাকতে পারবে না। ও যদি পাড়ায় ক্রিকেট খেলতে যায় খেলতে পারবে। উদাহরণ হিসেবে বললাম। আমাদের কোনও ফিজিও তাকে ওয়ান টু ওয়ান দেখতে পারে।’

তবে ফিটনেস ও খেলার জন্য প্রস্তুত থাকার কাজটা সাকিবের নিজেরই করতে হবে, মনে করেন পাপন। বিসিবি সভাপতির ভাষায়, ‘সাকিব ওর মতো করে অনুশীলন করবে। এ মাসেই সে দেশে আসবে এবং অনুশীলন শুরু করবে। আশা করছি সে ফিট থাকবে এবং আমাদের সঙ্গে শ্রীলঙ্কায় যোগ দেবে এবং খেলতে পারবে। আমরা এখন থেকেই তাকে দেখব। আমরা তার ফিটনেস টেস্টও নেব। হঠাৎ করে গিয়েই তো খেলতে পারবে না। এজন্যে তাকে সেভাবেই প্রস্তুতি নিতে হবে।’

এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]