আজহার আলিকে বদলে আবিদ আলি বানিয়ে দিল পাকিস্তান

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:১৭ পিএম, ২৪ আগস্ট ২০২০

সাউদাম্পটনে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টেস্টে পাকিস্তান ভীষণ চাপে। ইংল্যান্ডের পাহাড়সম ৫৮৩ রানের জবাবে ২৭৩ রানেই গুটিয়ে গেছে সফরকারিদের প্রথম ইনিংস। ৩১০ রানের বড় ব্যবধানে এগিয়ে থাকা ইংলিশরা ফলোঅনে পাঠাতে ভুল করেনি পাকিস্তানকে।

হাতে অনেক বড় লিড বলেই শুধু নয়। শেষ বিকেলে ৫-৬ ওভারের মতো খেলা বাকি ছিল বলেই সম্ভবত ফলোঅনকে সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত মনে করে ইংলিশ টিম ম্যানেজম্যান্ট। এই ক’ ওভারের মধ্যে পাকিস্তান ব্যাটিংয়ে নামবে, দুই একটি উইকেট ফেলতে পারলেই ‘কেল্লা ফতে’।

প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের হয়ে বলতে গেলে একাই লড়েছেন আজহার আলি। ক্যাপ্টেনস নক যাকে বলে! ১৪১ রানে অপরাজিত থাকেন পাকিস্তান দলপতি। সঙ্গীর অভাবে দলের সংগ্রহটা আরও বড় করতে পারেননি।

ফলোঅনে পড়ার পর নিজেই দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন আজহার। ব্যাট প্যাড তো পরাই ছিল, ওপেনিংয়ে নেমে পড়েন শান মাসুদের সঙ্গে। কিন্তু আলোক স্বল্পতার কারণে তৃতীয় দিনের শেষ বিকেলে আর পাকিস্তান ইনিংস শুরু করা যায়নি।

jagonews24

আজহার-মাসুদ ফিরে যান ড্রেসিংরুমে। চতুর্থ দিনের সকালে দেখা যায় শান মাসুদের সঙ্গে আর আজহার নেই, নেমেছেন নিয়মিত ওপেনার আবিদ আলিই। কি হলো? আজহার তো আউট হননি, চোটেও পড়েননি। তবে আবিদ আলি কিভাবে এলেন?

আসলে ক্রিকেটীয় আইন অনুযায়ী, ওপেনিং ব্যাটসম্যানদের ইনিংস হিসেব করা হয় একদম খেলা মাঠে গড়ানোর সময় থেকে। অন্য ব্যাটসম্যানদের বেলায় যেটা কি না মাঠে প্রবেশের পর থেকেই হিসেব শুরু হয়।

যেহেতু আজহার ওপেনিংয়ে নামার পরও ইনিংস শুরু হয়নি, তাই তার বদলে পরের দিন আরেকজন ওপেনিংয়ে নামতে কোনো আইনগত বাধা নেই। সেই দিকটি মাথায় রেখেই চতুর্থ দিনের সকালে আজহারের বদলে নিয়মিত ওপেনার আবিদ আলিকে পাঠিয়েছে পাকিস্তান।

শান মাসুদের সঙ্গে আবিদের ওপেনিং জুটিটা বেশ ভরসা দিচ্ছে দলকে। ১৪ ওভার শেষে বিনা উইকেটেই পাকিস্তান তুলেছে ৩৪ রান। মাসুদ ১০ আর আবিদ ১৮ রানে অপরাজিত আছেন। সফরকারি দল পিছিয়ে ২৭৬ রানে।

এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]