লঙ্কান বোর্ড দেরি করলে ভিন্ন চিন্তা করবে বিসিবি

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৩২ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

বল এখন শ্রীলঙ্কার কোর্টে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সাফ জানিয়ে দিয়েছে, সফরে ৭ দিনের বেশি কোয়ারেন্টাইন করতে পারবে না টাইগার ক্রিকেটাররা। কিন্তু লঙ্কান বোর্ডও তাদের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিয়ে ১৪ দিনের কমে পারছে না। এই অবস্থায় ঝুলে আছে বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফরের ভাগ্য।

তবে এভাবে তো আর ঝুলে থাকবে না! লঙ্কান বোর্ড দেরি করলে বিসিবি ভিন্ন চিন্তা করবে, গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে এমন কথাই জানালেন বোর্ডের মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস।

সফর নিয়ে জালাল ইউনুস বলেন, ‘আমরা এখনও (লঙ্কান বোর্ডের) ই-মেইলের অপেক্ষায় আছি। এখন পর্যন্ত সেটা আমরা পাইনি, আশা করি কয়েকদিনের মধ্যে জানতে পারব।’

শ্রীলঙ্কা যে সফর নিয়ে গড়িমসি করছে, তাতেও পুরোপুরি ওই বোর্ডের দায় দেখছেন না বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান। লঙ্কান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বিদেশিদের জন্য ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইন পিরিয়ড বেঁধে দিয়েছে। সেটা দেখভাল করার জন্য টাস্ক ফোর্স আছে।

জালাল ইউনুসের ভাষায়, ‘এটা তো আমাদের কাছে না, সিদ্ধান্তটা শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটেরও না আসলে। আপনারা জানেন যে তাদের একটা টাস্ক ফোর্স আছে। এই টাস্ক ফোর্স কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণ করে শ্রীলঙ্কাতে।’

‘শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট তাদের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছে, তারা জানলে আমরা পরে জানতে পারব। আমরা নির্দিষ্ট করে এখনো কিছু বলিনি। আমরা বলেছি কোয়ারেন্টাইন মেয়াদ কমাতে হবে ও তার সাথে আমাদের অনুশীলনের সুযোগ থাকতে হবে। এ জিনিসটা আমরা তাদের জানিয়েছি। এখন তাদের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছি।’

লঙ্কান বোর্ড থেকে হঠাৎ যদি ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যায়, তবে সফরে যাওয়ার প্রস্তুতি আছে কি? আর সেটা নেতিবাচক হলেও বা বিসিবির ভাবনা কি?

এমন প্রশ্নে জালাল ইউনুস বলেন, ‘আমরা প্রস্তুত। আগে যেরকম প্রস্তুতি নেওয়ার কথা ছিল সেরকম প্রস্তুতিই নিয়ে রেখেছি। ইতিবাচক কোনো উত্তর আসলে আমরা এক সপ্তাহের মধ্যে প্রস্তুতি নিতে পারব। সেদিক দিয়ে আমাদের কোনো অসুবিধা হবে না। দুই একদিন হয়তো এদিক সেদিক হতে পারে। বেশি দেরি করলে আবার আমাদের হয়তো নতুন করে চিন্তা ভাবনা করতে হবে।’

এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]