আমি নিজেকেই চমকে দিয়েছি : ডি ভিলিয়ার্স

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৫৬ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০

আইপিএলের নতুন আসরের প্রথম ম্যাচে ১০ রানের জয় দিয়ে শুভসূচনা করেছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু। সোমবারের ম্যাচে আগে ব্যাট করে ১৬৩ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় ব্যাঙ্গালুরু। জবাবে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ইনিংস থেমেছে ১৫৩ রানে অলআউট হয়ে।

বল হাতে মাত্র ১৮ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ব্যাঙ্গালুরুর জয়ে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন ইয়ুজভেন্দ্র চাহাল। তবে ব্যাট হাতে নিরাপদ পুঁজি এনে দেয়ার কৃতিত্বটা অভিষিক্ত ওপেনার দেবদূত পাড্ডিকাল ও তারকা ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স। দেবদূত খেলেছেন ৪২ বলে ৫৬ রানের ইনিংস। ডি ভিলিয়ার্সের ব্যাট থেকে এসেছে ৩০ বলে ঝড়ো ফিফটি।

ব্যাঙ্গালুরু ইনিংসের ফিনিশিংটা দিয়েছেন ডি ভিলিয়ার্সই। দীর্ঘদিন পর খেলতে নেমে এতো ভালো ব্যাটিং করতে পারবেন- এমনটা ভাবতেও পারেননি ডি ভিলিয়ার্স। শেষপর্যন্ত ৪ চার ও ২ ছয়ের মারে খেলেছেন ৫১ রানের ইনিংস। প্রায় ৮ মাস পর প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে নেমে এমন ব্যাটিং করতে পেরে নিজেই চমকে গেছেন ডি ভিলিয়ার্স।

ম্যাচ শেষে তিনি বলেছেন, ‘সত্যি বলতে, আমি নিজেকেই চমকে দিয়েছি। দক্ষিণ আফ্রিকায় আমাদের একটা ভালো ম্যাচ হয়েছে। সেটা খুব কাজে দিয়েছে। আমার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল এখানের শুরুটা ভালো করা। এছাড়া আমার আত্মবিশ্বাসের কমতি ছিল না। দলে অনেক ভারতীয় ও অস্ট্রেলিয়ার প্রতিভাবান ক্রিকেটার রয়েছে। আমরা জশ ফিলিপকে দেখেছি, সেও দুর্দান্ত।’

ভিলিয়ার্স আরও যোগ করেন, ‘আপনি যখন খেলতে আসেন কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে খুব বেশি খেলার মধ্যে থাকেন না, তখন একটা সংশয় কাজ করে নিজের মধ্যে। তবে গত চার সপ্তাহে আমরা কঠোর পরিশ্রম করেছি এবং আমি নিজে ফর্ম খুঁজে পেয়েছি। আজকের শুরুটা তৃপ্তিদায়ক ছিল। দূর্ভাগ্যবশত রানআউট হয়েছি। তবে বেসিকটা ঠিক থাকায় আমি খুশি।’

এসএএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]