মুখোমুখি লড়াইয়ে সাকিবের সাবেক দুই দল

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:০৬ এএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

সবকিছু স্বাভাবিক থাকলে এখন ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ খেলতে আরব আমিরাতে থাকতে পারতেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। কিন্তু ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব গোপন রাখার অপরাধে পাওয়া নিষেধাজ্ঞার কারণে আইপিএলই নয়, সবধরনের ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত সাকিব।

তবে সাকিব না থাকলেও, করোনা লকডাউনের পর পুনরায় শুরু হয়েছে সবধরনের ক্রিকেট। যার মধ্যে অন্যতম জমজমাট ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আইপিএল। এরই মধ্যে হয়ে গেছে আইপিএলের ৭টি ম্যাচ। আজ (শনিবার) রাতে মাঠে নামছে সাকিবের সাবেক দুই দল কলকাতা নাইট রাইডার্স ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

এরই মধ্যে একটি করে ম্যাচ খেলে ফেলেছে কলকাতা ও হায়দরাবাদ। দুই দলই হেরেছে নিজেদের প্রথম ম্যাচ। নেট রান রেটের হিসেবে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে অবস্থান করছে কলকাতা, তাদের ঠিক ওপরে হায়দরাবাদ। শনিবার রাতের ম্যাচটিতে যেকোনো এক দল পাবে এবারের আসরে নিজেদের প্রথম জয়।

তবে ম্যাচের ভেন্যু আবুধাবির শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে নিজেদের অতীত পরিসংখ্যান দেখে আত্মবিশ্বাসী হওয়ার সুযোগ নেই কোনো দলেরই। এই মাঠে এখনও পর্যন্ত চার ম্যাচ খেলে মাত্র ১টি জিতেছে কলকাতা। অন্যদিকে একমাত্র ম্যাচ খেলে সেটিতে হেরেছে হায়দরাবাদ।

হায়দরাবাদের অধরা জয় পাওয়ার মিশনে আবার বাধা হিসেবে রয়েছে ইনজুরি সমস্যা। আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই ইনজুরির কারণে অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার মিচেল মার্শকে পুরো টুর্নামেন্ট থেকে হারিয়ে বসেছে তারা। ফলে বাধ্য হয়েই একাদশে একটি পরিবর্তন আনতে হবে হায়দরাবাদের। তবে ইনজুরিজনিত কোনো সমস্যা নেই কলকাতার।

এই ম্যাচে ৮৯ রান করতে পারলেই আইপিএল ক্যারিয়ারে ১৫০০ রান পূরণ হবে কলকাতার তারকা অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেলের। কিন্তু হায়দরাবাদের বিপক্ষে তার আইপিএল ক্যারিয়ারের গড় ১৫'র কম। ফলে খুব একটা আশাবাদী হওয়ার সুযোগ নেই রাসেল তথা কলকাতার ভক্তদের।

তবে তাদেরকে বাড়তি সাহস যোগাতে পারেন পুরোদস্তুর বোলার থেকে মারকুটে অলরাউন্ডার বনে যাওয়া সুনিল নারিন। আর মাত্র ৫টি ছক্কা হাঁকালেই আইপিএলের ৫০ ছক্কা পূরণ হবে নারিনের। হায়দরাবাদের বিপক্ষে ম্যাচেই যদি ৫টি ছক্কা মারতে পারেন নারিন, তাহলে উড়ন্ত সূচনার পাশাপাশি ভালো একটা সংগ্রহ পেতে পারে কলকাতা।

কলকাতার সম্ভাব্য একাদশ: সুনিল নারিন, শুভমান গিল, দীনেশ কার্তিক, নিতিশ রানা, ইয়ন মরগ্যান, আন্দ্রে রাসেল, নিখিল নায়েক, প্যাট কামিনস, কুলদীপ যাদব, শিভাম মাভি এবং সন্দ্বীপ ওয়ারিয়ার।

হায়দরাবাদের সম্ভাব্য একাদশ: জনি বেয়ারস্টো, ডেভিড ওয়ার্নার, মনিশ পান্ডে, প্রিয়ম গার্গ, কেন উইলিয়ামসন, বিজয় শংকর, অভিষেক শর্মা, রশিদ খান ভুবনেশ্বর, সন্দ্বীপ শর্মা এবং খলিল আহমেদ।

উল্লেখ্য, আইপিএলে এখনও পর্যন্ত ৮টি মৌসুমে খেলেছেন সাকিব আল হাসান। ২০১১ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত ছিলেন কলকাতায়, জিতেছেন দুইটি শিরোপা। এ সময়ে ৪৩ ম্যাচ খেলে ব্যাট হাতে ৪৯৮ রান করার পাশাপাশি বল হাতে ৪৩টি উইকেট শিকার করেছেন তিনি। পরের দুই মৌসুম খেলেছেন হায়দরাবাদে। যেখানে তার অবদান ২০ ম্যাচে ২৪৮ রান ও ১৭টি উইকেট।

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]