আইপিএলে কলকাতার ‘যম’ ডেভিড ওয়ার্নার

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৪৪ পিএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

আইপিএলের চলতি আসরের শুরুটা একদমই ভালো হয়নি কলকাতা নাইট রাইডার্স ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদের। দুই দলই হেরেছে নিজেদের প্রথম ম্যাচে। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের কাছে কলকাতার হার ৪৯ রানে, রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর কাছে ১০ রানে হেরেছে হায়দরাবাদ।

নিজেদের প্রথম জয়ের খোঁজে শনিবার রাতে মুখোমুখি হচ্ছে কলকাতা ও হায়দরাবাদ। তবে কলকাতার অধিনায়ক দীনেশ কার্তিকের জন্য কাজটি মোটেও সহজ হতে যাচ্ছে না। কেননা প্রতিপক্ষ শিবিরের অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার যে সাক্ষাৎ কলকাতা নাইট রাইডার্সের যম।

আইপিএলে এখনও পর্যন্ত কলকাতার বিপক্ষে ২১ ম্যাচ খেলে ৪৩.৬৩ গড়ে ৮২৯ রান করেছেন ওয়ার্নার, স্ট্রাইকরেট ১৪৭.৭৭। কলকাতার বিপক্ষে ওয়ার্নারের চেয়ে বেশি রান করেছেন কেবল রোহিত শর্মা। আজকের ম্যাচে ৭৪ রান রান করলেই রোহিতকে ছাড়িয়ে কলকাতার বিপক্ষে সর্বোচ্চ রানের মালিক হয়ে যাবেন হায়দরাবাদ অধিনায়ক।

শুধু তাই নয়, আইপিএল ইতিহাসে কলকাতার বিপক্ষে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রানের ইনিংসের রেকর্ডও ওয়ার্নারের দখলে। ২০১৭ সালের আইপিএলে কলকাতার বিপক্ষে ১২৬ রান করেছিলেন ওয়ার্নার। দলটির বিপক্ষে এক ম্যাচে এর চেয়ে বেশি রান করতে পারেননি আর কোনো ব্যাটসম্যান।

এর সঙ্গে যোগ করে নেয়া যায় ফিফটির রেকর্ডও। কলকাতার বিপক্ষে এখনও পর্যন্ত ৬টি পঞ্চাশোর্ধ্ব রানের ইনিংস খেলেছেন ওয়ার্নার। এ রেকর্ডে তার সামনে রয়েছেন শুধুমাত্র সুরেশ রায়না (৯) ও রোহিত শর্মা (৭)।

হিসেবটা যদি নামিয়ে আনা হয় ছক্কার রেকর্ডে, তাহলে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকবেন ওয়ার্নার। কলকাতার বিপক্ষে সর্বোচ্চ ৪৯টি ছক্কা মেরেছেন গেইল। ঠিক তারপরেই রয়েছেন ৩৭টি ছক্কা হাঁকানো ওয়ার্নার।

তাকে থামানোর অস্ত্র হিসেবে কুলদ্বীপ যাদবকে ব্যবহার করতে পারে কলকাতা। বাঁহাতি এ চায়নাম্যানের বিপক্ষে চার ম্যাচ খেলে দুইবার আউট হয়েছেন ওয়ার্নার। এই চার ম্যাচে কুলদ্বীপের ৩৭ বল খেললেও ৫৩ রানের বেশি করতে পারেননি অসি ওপেনার।

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]