টি-টোয়েন্টি দিয়েই শুরু হবে ঘরোয়া ক্রিকেট

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:০৬ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

শ্রীলঙ্কা সফর বাতিল হবার মুহূর্ত থেকে কিছু প্রাসঙ্গিক প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে ক্রিকেট অনুরাগিদের মাথায়। প্রথম প্রশ্ন, এখন কি আর জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের অনুশীলন চলবে?

আর ঘরোয়া ক্রিকেট চালুর কথা বলা হচ্ছে। আগে কোনটা হবে প্রিমিয়ার লিগ, বিসিএল নাকি জাতীয় দল, এইচপি ও অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটারদের নিয়ে কোনো তিন-চার দলের টুর্নামেন্ট দিয়ে?

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন আজ সোমবার সে প্রশ্নের উত্তর দিয়ে দিয়েছেন। তার জবাব, জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের খেলা চলবে। ‘এদের তো এখনও ১৫ দিনের ক্যাম্প বাকি আছে। এই অনুশীলনটা চলবে। এরপর খেলা হবে।’

সেটা কি রকম? তার ব্যাখ্যাও আছে, ‘তিনটি অনুশীলন ম্যাচ হবে ওদের মধ্যেই।’ পাপন আরও যোগ করেন, ‘এর মধ্যেই শুরু হবে যে টুর্নামেন্টটি আমরা করতে চাচ্ছি, সেটা।’

তার নামকরণ প্রসঙ্গে বিসিবি বিগ বসের ব্যাখ্যা, এটা যে নামেই হোক। জাতীয় দল, এইচপি, অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বেশিরভাগ ক্রিকেটার নিয়ে যদি আমরা টুর্নামেন্ট করতে পারি তাহলে সেটি দিয়েই ক্রিকেট শুরু হবে।’

তার ভাষায়, ‘এখন পর্যন্ত যা বুঝতে পারছি সেটা খুব সম্ভবত টি-টোয়েন্টিই হবে।’ পাশাপাশি প্রথম, দ্বিতীয় বিভাগ ও প্রিমিয়ার লিগ যা যা বাকি আছে সেগুলো শেষ করে ফেলার কথাও বলেছেন বিসিবি প্রধান।

তিনি বোঝানোর চেষ্টা করেন, ‘প্রিমিয়ার লিগের প্রস্তুতির জন্য সময় প্রয়োজন। সে জন্যই একটু সময় নিচ্ছি। যেন খেলার মধ্যেই আমরা থাকি।’ নাজমুল হাসান পাপন পরিষ্কার বলে দিয়েছেন, ‘খেলা চালু করাই খুব বড় ব্যাপার না। আসল কথা হলো ক্রিকেটারদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।’

তাই মুখে এমন কথা, ‘খেলা আয়োজন বা শুরু করা তত গুরুত্বপূর্ণ নয়, আসল কথা হলো আমরা নিরাপত্তা নিশ্চিত করবো কিভাবে? খেলোয়াড়দের নিরাপত্তা নিশ্চিত করাও আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সে কারণে আমি বলেছি, ক্লাবগুলোকে ডাকতে, খেলোয়াড়দের সঙ্গে বসতে এবং আমাদেরকে একটা পরিকল্পনা দিতে। আমাদের কাছে যদি মনে হয়, সেই পরিকল্পনা মোটামুটি সন্তোষজনক হয়, তাহলে আমরা দ্রুত খেলা চালু করে দিব।’

বিসিবি সভাপতির কথা শুনে মনে হলো তিনি মনে-প্রাণে চান প্রিমিয়ার লিগ মাঠে গড়াক। নাজমুল হাসান পাপনের কথা, ‘পেন্ডিং যে লিগটি আছে সেটি নিয়ে আমরা এখন কথা বলছি। সেটা আগে শেষ করতে হবে। হয়তো সিঙ্গেল লিগ করতে হতে পারে, সেটা আলাদা ব্যাপার। তবে লিগ শেষ করতে হবে এবং তাড়াতাড়ি প্রস্তুতি নিতে হবে যেন আমরা পরের বছরের লিগটাও শেষ করতে পারি।’

এ দুটি একসঙ্গে আয়োজন করতে না পারলে আপাতত লিগ শেষ করার কথাই জানিয়েছেন বিসিবি বিগ বস। তিনি বলেন, ‘এখন সেটা যদি পারি তো পারলাম, না হলে এ বছরেরটার মধ্যেই থাকবে। মানে যেটা করা সম্ভব সেটাই করা হবে।’

তবে প্রিমিয়ার লিগ আয়োজনের আগে ক্রিকেটারদের জীবনের নিরাপত্তা তথা করোনামুক্ত থাকার নিশ্চয়তা বিধানে সচেষ্টা থাকার ওপর সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়েছেন পাপন। তাই তিনি ক্রিকেটাররা কোথায় থাকবেন, কোন কোন মাঠে খেলা হবে- এগুলো আাগে তাকে জানাতে বলেছেন।

‘এগুলো যদি আমাকে না জানায় তাহলে আমি সিদ্ধান্ত দিতে পারছি না। এটা ওরা আজকেই সিদ্ধান্ত নেবে, এমনটা বলছি না। আগে আমার দেখতে হবে কোথায় খেলা হবে, খেলোয়াড়েরা কোথায় থাকবে, ক্লাবগুলোর সঙ্গে কথা বলতে হবে। ওদেরকে তো অনেককিছু মেইনটেইন করতে হবে। তাহলে আমাদেরকে একটা গাইডলাইন দিতে হবে। এই গাইডলাইন দেখে কে কে রাজি খেলার জন্য সেটাও জানতে হবে। এই সবকিছু নিয়ে আমি বসতে বলেছি। আমার মনে হয় আগামী ৫-৬ দিনের মধ্যে মনে হয় সবকিছু জেনে যাব।’

এআরবি/আইএইচএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]