ক্রিকেট নিয়ে লেখেন যারা, তারাই এখন ক্রিকেটার

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:২১ এএম, ১৮ অক্টোবর ২০২০

তাদের বছরের পুরোটা সময় কাটে ক্রিকেট, ক্রিকেটার ও ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট সকল কিছুর খবর নেয়া ও সেগুলো পাঠকদের দেয়ার মধ্য দিয়ে। বলা চলে, ক্রিকেটেই বসবাস তাদের। তারা অন্য কেউ নয়, দেশের ক্রিকেট সাংবাদিকরা, যারা এখন নিজেরাই হয়ে গেছেন ক্রিকেটার।

গতবছরের অক্টোবর-নভেম্বর থেকে নিজেদের কর্মব্যস্ততার ফাঁকে ফাঁকে ক্রিকেট চর্চার জন্য ‘মিরপুর ক্রিকেটার্স’ নামে খেলতে শুরু করেন দেশের ক্রিকেট সাংবাদিকরা। সবশেষ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ চলাকালীন সময় থেকে শুরু হয় তাদের নিয়মিত অনুশীলন।

পেশাগত ক্রিকেটারদের অনুশীলন কভার করতে সকালে থাকতে হবে মাঠে, তাই ভোরের সময়টা নিজেদের অনুশীলনের জন্য বেছে নেয় মিরপুর ক্রিকেটার্স। এরই মধ্যে নিজেদের মধ্যকার ম্যাচ বাদেও বিভিন্ন কর্পোরেট হাউজের বিপক্ষে ম্যাচ খেলেছে দলটি।

গত ১৭ মার্চ নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলেছিল মিরপুর ক্রিকেটার্স। সে ম্যাচটি জিততে পারেনি তারা। এরপর মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে লম্বা বিরতি চলে আসে তাদের দলীয় কার্যক্রমে। তবে দীর্ঘ অপেক্ষার পর মাঠে ফেরার পথে পা বাড়িয়েছে মিরপুর ক্রিকেটার্স।

সে লক্ষ্যে শনিবার (১৭ অক্টোবর) দেশের হোম অব ক্রিকেট শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামের প্রেসবক্সের ছাদে হয়ে গেলো মিরপুর ক্রিকেটার্সের অফিসিয়াল জার্সি উন্মোচন। বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের চতুর্থ ম্যাচের দিন মিরপুর ক্রিকেটার্সের বর্ণিল জার্সি বাড়তি রঙ যোগ করে শেরে বাংলার প্রেসবক্সে।

জার্সি উন্মোচন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জ্যেষ্ঠ ক্রীড়া সাংবাদিক ও জাগোনিউজ২৪ডটকমের বিশেষ সংবাদদাতা আরিফুর রহমান বাবু, প্রথম আলোর ক্রীড়া সম্পাদক তারেক মাহমুদ, কালের কণ্ঠের বিশেষ প্রতিনিধি মাসুদ পারভেজ ও নিউজজিডটকমের বিশেষ প্রতিনিধি শামীম চৌধুরী।

মিরপুর ক্রিকেটার্সের জার্সি স্পন্সর হিসেবে আছে ওয়ালটন গ্রুপ।

জার্সি উন্মোচনের পর মিরপুর ক্রিকেটার্সের আধিনায়ক আরিফুল ইসলাম রনি বলেন, ‘সারা বছর ক্রিকেটের সঙ্গে থাকতে হয়, ক্রিকেট নিয়ে লিখি আমরা। কেবল পেশাগত কারণে নয়, ক্রিকেটের প্রতি আবেগও এর অন্যতম কারণ। ক্রিকেট নিয়ে লেখার পাশাপাশি আমরা নিয়মিতভাবে খেলাটি খেলেও আসছি। ক্রিকেট নিয়ে লেখার পাশাপাশি এভাবেই খেলে যেতে চাই।’

এসএএস/এফআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]