ভারতে আসতে আইসিসির কাছে ভিসা চাইলো পাকিস্তান

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৫০ পিএম, ২১ অক্টোবর ২০২০

ভারত আর পাকিস্তানের মধ্যকার রাজনৈতিক বৈরিতার প্রভাব অনেক আগে থেকেই পড়ে আছে ক্রিকেটে। যে কারণে দীর্ঘদিন দুই দেশের মধ্যে ক্রিকেটীয় সম্পর্ক নেই। সফর বিনিময় তো দুরে থাক।

কিন্তু বিষয়টা যখন বিশ্বকাপ সম্পর্কিত হয়ে দাঁড়ায়, তখন তো অনিচ্ছা সত্ত্বেও সম্পর্কটা স্থাপন করতে হয়। যদিও এখানে অবধারিতভাবেই বিশ্বকাপের হোমভেন্যু ভারত। পাকিস্তানকে আইসিসিই তাদের যে কোনো ইভেন্টের জন্য আপাতত ভেন্যু হিসেবে নির্বাচন করবে না।

আগামী বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক হতে যাচ্ছে ভারত। সেখানে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা খেলতে যেতে পারবেন কি পারবেন না, তা নিয়েই তৈরি হয়েছে একটা সংশয়।

ভারত পাকিস্তানের মাটিতে খেলতে আসতে রাজী না হলেও পাকিস্তান যেতে চায় ভারতের মাটিতে। বিষয়টা যেহেতু আইসিসির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত, সেহেতু ভারত মানসিকভাবে না চাইলেও আসতে হচ্ছে পাকিস্তানকে। কিন্তু পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ভারতে খেলতে যাওয়া রাজনৈতিক বৈরিতার কারণে বাধাগ্রস্ত হয় কি না, তা নিয়েই শঙ্কা-সংশয়।

কারণ, দু’দেশের রাজনৈতিক সম্পর্ক যে পর্যায়ে রয়েছে তাতে ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশগ্রহণের জন্য ভারতের ভিসা পাওয়া নিয়ে এখন থেকেই উদ্বিগ্ন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

ভারতে আয়োজিত ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অংশগ্রহণের জন্য ভিসার ব্যাপারে আইসিসির কাছ থেকে নিশ্চয়তা চায় পিসিবি। শুধু তাই নয়, আগামী ডিসেম্বর-জানুয়ারি পর্যন্ত সময়সীমাও বেঁধে দিয়েছে তারা।

করোনাভাইরাসের কারণে ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত হয়ে যায়। এ কারণে আইসিসির নতুন সূচি অনুযায়ী পরপর দু’বছর হবে দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২০২১ সালের অক্টোবর-নভেম্বর মাসে ভারতের মাটিতে বসবে আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর। পরের বছর একই সময়ে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে বসবে আরও একটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর।

এখন ভারতে আয়োজিত বিশ্বকাপে অংশ নিতে পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের ভিসা জটিলতার শঙ্কায় রয়েছে পিসিবি। এ কারণেই ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থার কাছে নিশ্চয়তা চাইছে বলে সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন পিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াসিম খান।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের দুশ্চিন্তার বিষয়টি আলোচনা করছি। যে কোনো ইভেন্টের আয়োজক ভেন্যু হওয়ার মূল শর্তই থাকে, অংশগ্রহণকারী দলগুলোর ভিসা নিশ্চয়তা দেয়া। আগামী টি-েটোয়েন্টি বিশ্বকাপেও একই নিয়ম। পাকিস্তান সেই অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর মধ্যে একটি। এখন আইসিসির কাছ থেকে আশ্বাস চেয়েছি, আমাদের ক্রিকেটারদের ভারতের ভিসা পাওয়ার বিষয়ে। বিসিসিআইয়ের সঙ্গে এই নিয়ে আলোচনা করবে আইসিসি। কারণ ভিসার নির্দেশ এবং নিশ্চয়তা দেবে ভারত সরকার।’

তবে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহীর এই বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। এশিয়ান নিউজ এজেন্সিকে (এএনআই) ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) এক কর্মকর্তা জানান, পিসিবি প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খানের এই চিন্তা অবান্তর। তিনি উদাহরণ দিয়ে বলেন, গত বছর ভারত সরকারের পক্ষ থেকে ইন্ডিয়ান অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনকে (আইওএ) চিঠি দিয়ে জানিয়েছে, যে কোনো দেশের যে কোনো খেলোয়াড় ভারতে অনুষ্ঠিত যে কোনো ইভেন্টে অংশ নিতে পারবে। এ ক্ষেত্রে কাউকে বাধা দেয়া হবে না। আমার মনে হয়, পিসিবির প্রধান নির্বাহী আমাদের সেই অবস্থানটা ভুলে গেছেন কিংবা উপেক্ষা করতে চেয়েছেন।’

আইএইচএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]