শেষ মুহূর্তে একি ঝড় তুললেন হার্দিক পান্ডিয়া!

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০৪ পিএম, ২৫ অক্টোবর ২০২০

হার্দিক পান্ডিয়া শেষ মুহূর্তে একি ঝড় তুললেন রাজস্থান রয়্যালস বোলারদের বিপক্ষে? জোফরা আরচার, অঙ্কিত রাজপুত এবং কার্তিক তেয়াগিকে দুঃস্বপ্নের এক রাত উপহার দিলেন তিনি! মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের এই লেট মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান শেষ তিন-চার ওভারে যে ঝড় তুলে দিলেন, তাতেই যেন আইপিএলের সমস্ত উত্তেজনা এসে জমা হলো।

১৭তম ওভারে জোফরা আরচারকে সৌরভ তিওয়ারি দুটি বাউন্ডারি এবং এক ছক্কা মেরে ১৭ রান নেন। পরের ওভারেই অঙ্কিত রাজপুতকে পেয়ে গেলেন হার্দিক পান্ডিয়া। এই এক ওভারেই চারটি ছক্কা মারলেন তিনি। সব মিলিয়ে তিনি নেন রাত ২৭টি।

পরের ওভার করতে আসেন জোফরা আরচার। এবার আর সৌরভ তিওয়ারি কিংবা পান্ডিয়া- কেউ তার ওপর চড়াও হতে পারেননি। বরং, ওভাররে প্রথম বলেই সৌরভ তিওয়ারির উইকেট নেন তিনি। পুরো ওভারে তিনি দিলেন মাত্র ৩ রান।

শেষ ওভারে বল করার জন্য স্টিভেন স্মিথ বল তুলে দিলেন কার্তিক তেয়াগির হাতে। ক্রুনাল পান্ডিয়া প্রথম বলে এক রান নিয়ে স্ট্রাইকে দেন হার্দিক পান্ডিয়াকে। এরপরের ৫ বলে তিনটি ছক্কা এবং দুটি বাউন্ডারি মারলেন হার্দিক পান্ডিয়া। নিলেন ২৭ রান।

শেষ পর্যন্ত ২১ বলে ৬০ রান করে অপরাজিত থাকেন হার্দিক পান্ডিয়া। মাত্র দুটি বাউন্ডারি মারলেন তিনি। ছক্কা মারলেন ৭টি। শেষ ৫ ওভারে নিলেন ৭৯ রান। তার এই ঝড়ের ওপর ভর করে রাজস্থান রয়্যালসের সামনে ১৯৬ রানের বিশাল একটি লক্ষ্য দাঁড় করিয়ে দিলো মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ওপেনার কুইন্টন ডি ককের উইকেট হারায় মুম্বাই। ৪ বলে ৬ রান করে আউট হন ডি কক। ৩৬ বলে ৩৭ রান করে আউট হন ইশান কিশান। ২৬ বলে ৪০ রান করেন আউট হন সুর্যকুমার যাদব। ২৫ বলে ৩৪ রান করেন সৌরভ তিওয়ারি। শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেট হারিয়ে ১৯৫ রান সংগ্রহ করে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

আইএইচএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]