আজহারকে অধিনায়ক হতে বাধ্য করা হয়েছিল : শোয়েব

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:১৭ পিএম, ২৭ অক্টোবর ২০২০

আজহার আলি আর পাকিস্তানের টেস্ট অধিনায়ক থাকছেন না। তাকে সরিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। গত বছরের অক্টোবরে সরফরাজ আহমেদের কাছ থেকে অধিনায়কত্ব পাওয়া আজহার এক বছর পেরোতে না পেরোতেই বাতিলের খাতায় চলে যাচ্ছেন। যা শুনে খেপেছেন পাকিস্তানের সাবেক গতিতারকা শোয়েব আখতার।

পাকিস্তানের স্থানীয় একটি টিভি চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে শোয়েব দাবি করেন, আজহারকে জোর করে টেস্ট নেতৃত্ব চাপিয়ে দিয়েছিল পিসিবি। এখন তাকে সরিয়ে দেয়া অকারণেই চাপে ফেলে দিচ্ছে তারা।

শোয়েব বলেন, ‘আজহার প্রথমদিকে টেস্টের অধিনায়ক হতেই চায়নি। কিন্তু তাকে জোর করে এই দায়িত্ব চাপিয়ে দেয়া হয়। এখন তারা অপ্রয়োজনীয় চাপ দিচ্ছে তাকে। এখন তার বদলে আরেকজনকে আনা হবে।’

পাকিস্তানের সাবেক পেস সুপারস্টার যোগ করেন, ‘আমার পরামর্শ থাকবে আজহার যেন তার খেলাটায় নিজের মনোযোগ রাখে এবং তারপর জানায় সে দলকে নেতৃত্ব দিতে চায় কি চায় না। এভাবে মাথার ওপর ঝুলন্ত তলোয়াড় রেখে চালিয়ে যাওয়ার মানে হয় না।’

মাত্র এক বছর অধিনায়কত্ব করেই দায়িত্ব হারাতে চলেছেন আজহার আলী। তার জায়গায় টেস্ট ক্রিকেটে পাকিস্তানের নতুন অধিনায়ক হতে চলেছেন ডানহাতি উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান।

শুধু রিজওয়ান নন, পাকিস্তানের নতুন টেস্ট অধিনায়ক হওয়ার দৌড়ে রয়েছে বাবর আজমের নামও। নতুন অধিনায়ক কে হবেন তা এখনও অনিশ্চিত, তবে আজহার যে আর টেস্ট অধিনায়ক থাকছেন না- তা পুরোপুরি নিশ্চিত। ডিসেম্বরে নিউজিল্যান্ড সফরে নতুন অধিনায়কের অধীনেই খেলবে পাকিস্তান দল।

পিসিবির একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, টেস্ট অধিনায়ক আজহার আলীর নেতৃত্ব নিয়ে খুব একটা খুশি নয় বোর্ড। কিন্তু পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইমরান খানের কিছুটা সমর্থন ছিলো বলেই এতদিন আজহারকে সরানোর কথা ভাবেনি পিসিবি। তবে এবার সিদ্ধান্তটা নিয়েই ফেলেছে বোর্ড, আজহার আর থাকছেন না।

এমএমআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]