পাঠানের সেরা একাদশে অধিনায়কত্বে চমক

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:২৫ পিএম, ১৬ নভেম্বর ২০২০

সদ্য সমাপ্ত ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের সেরা একাদশ বাছাই করতে গিয়ে চমকই উপহার দিয়েছেন ভারতের সাবেক অলরাউন্ডার ইরফান পাঠান। একাদশে রাখা খেলোয়াড়দের নিয়ে নানান মত থাকলেও, অধিনায়কত্বের ব্যাপারে অন্য সবার চেয়ে ভিন্ন এক পছন্দকেই দলে নিয়েছেন ইরফান।

আইপিএলের ১৩তম আসরটিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। টুর্নামেন্টের ইতিহাসে প্রথম দল হিসেবে পাঁচ শিরোপা জেতার রেকর্ড গড়েছে তারা। এছাড়া দ্বিতীয় দল হিসেবে জিতেছে পরপর দুই আসরের শিরোপা। এসব কীর্তিতেই অধিনায়ক ছিলেন ডানহাতি ওপেনার রোহিত শর্মা।

কিন্তু অধিনায়কত্ব পরে রোহিতকে নিজের সেরা একাদশেই জায়গা দিতে পারেননি ইরফান। একইভাবে ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকেও রাখেননি তিনি। অধিনায়ক হিসেবে বেছে নিয়েছেন মুম্বাইয়ের ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার কাইরন পোলার্ডকে। যাকে পুরোদস্তুর অলরাউন্ডার হিসেবে ব্যবহারের কথাই বলেছেন ইরফান।

ব্যাটিং পারফরম্যান্স বিবেচনায় রোহিত-কোহলিকে একাদশে না নেয়ার সিদ্ধান্ত যুক্তিযুক্তই ধরে নেয়া যায়। কিন্তু আসরের তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ডেভিড ওয়ার্নারকেও দলে রাখেননি ইরফার। টপঅর্ডারের তিন ব্যাটসম্যানই নিয়েছেন ভারত থেকে। চার নম্বরে নিয়েছেন এবি ডি ভিলিয়ার্সকে।

এদিকে টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় হিসেবে মোস্ট ভ্যালুয়েবল প্লেয়ার অব দ্য সিজন নির্বাচিত হওয়া জোফরা আর্চারকেও একাদশে রাখেননি ইরফান। যেমনটা রাখেননি আসরের সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরস্কার জেতা দেবদূত পাড্ডিকালকেও। যার ফলে তার এ একাদশ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে অনেক।

স্টার স্পোর্টসের আড্ডায় সেরা একাদশ বাছাইয়ের বিষয়ে ইরফান বলেছেন, ‘লোকেশ রাহুল তো অবশ্যই থাকবে। তার সঙ্গে শিখর ধাওয়ান। আমি ডেভিড ওয়ার্কারকে নিতে পারছি না কারণে আমাদের দলে চারজনের বেশি বিদেশি নেয়ার সুযোগ নেই।’

অধিনায়কত্বের চমক দিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার দলে পাঁচ নম্বরে নামবে কাইরন পোলার্ড। সে আবার অধিনায়কত্বও করবে। হার্দিক পান্ডিয়াকে নেয়া যেত। কিন্তু সে বোলিং করছে না। অন্যদিকে পোলার্ড আমাকে বোলিংও দেবে এবং অধিনায়কত্ব করবে। সে অসাধারণ এক ফিল্ডারও বটে। একজন থ্রি-ডাইমেনশনাল খেলোয়াড় পাবো পোলার্ডের মাঝে।’

ইরফান পাঠানের সেরা আইপিএল একাদশ
লোকেশ রাহুল, শিখর ধাওয়ান, সূর্যকুমার যাদব, এবি ডি ভিলিয়ার্স, কাইরন পোলার্ড (অধিনায়ক), মার্কাস স্টয়নিস, রাহুল তেওয়াতিয়া, ইয়ুজভেন্দ্র চাহাল, কাগিসো রাবাদা, জাসপ্রিত বুমরাহ এবং মোহামেদ শামি।

এসএএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]