প্রথম তিন ম্যাচ খেলা হচ্ছে না সাইফউদ্দিনের!

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০১:০৪ পিএম, ২৩ নভেম্বর ২০২০

আগেই জানা, অনুশীলনে ফুটবল খেলতে গিয়ে গোড়ালিতে চোট পেয়েছেন মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। আসর শুরুর ঠিক ৪৮ ঘন্টা আগে গোড়ালির ইনজুরির শিকার হওয়ার মানেই অনিশ্চয়তার দোলাচালে পড়ে যাওয়া।

সাইফউদ্দিনের ভবিষ্যত কী? এ পেস বোলিং অলরাউন্ডার কি বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের শুরু থেকে খেলতে পারবেন? নাকি এ আসর খেলাই কঠিন? আর খেলতে পারলেও কয় ম্যাচ পারবেন? সবার মনে এই কৌতূহলী প্রশ্ন।

এমনিতে গোড়ালির ইনজুরিতে পড়া মানে অন্তত সাত থেকে দশ দিনের জন্য মাঠের বাইরে চলে যাওয়া। এখন সাইফউদ্দিন কত দিনে ফিট হয়ে মাঠে নামতে পারবেন? তা নিয়ে রাজশাহীর ভক্ত-সমর্থকরা চিন্তিত।

দলের কোচ সারোয়ার ইমরানের ধারণা, গোড়ালির ইনজুরি কাটিয়ে সাইফউদ্দিনের পক্ষে সহসাই মাঠে ফেরা সহজ হবে না এবং তার পক্ষে হয়তো প্রথম দিকে বেশ কয়েকটি ম্যাচে মাঠে নামা সম্ভবও না।

আজ (সোমবার) জাগো নিউজের সঙ্গে সাইফউদ্দিন প্রসঙ্গে আলাপে সারোয়ার ইমরান বলেন, ‘আসলে সাইফউদ্দিনের গোড়ালির সর্বশেষ ও প্রকৃত অবস্থা কী- তা সবচেয়ে ভাল বলতে পারবেন ফিজিও। তিনিই সাইফউদ্দিনকে দেখছেন। ফিজিওই সর্বশেষ অবস্থা জানাবেন। হয়তো আজ রাতেই জানা যাবে আসলে সাইফউদ্দিনের সত্যিকার অবস্থা।’

ইমরান যোগ করেন, ‘এমনিতে গোড়ালি হচ্ছে একটা ভাইটাল জায়গা। শরীরের পুরো ওজন পড়ে গোড়ালিতে। তাই এ ইনজুরি খুব সহসাই ভাল হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে। তবে এখন আধুনিক চিকিৎসার যুগ, ফিজিওরা তা ভাল জানেন। তারাই আসলে বলতে পারবেন, কবে নাগাদ তার পক্ষে মাঠে ফেরা সম্ভব হবে।’

তবে রাজশাহী কোচের দাবি, ‘আমার অভিজ্ঞতা বলে সাইফউদ্দিনের পক্ষে অন্তত এক সপ্তাহেরর আগে মাঠে ফেরা খুব কঠিন হবে।’

আর যদি তাই সত্যি হয়, তাহলে মঙ্গলবারের উদ্বোধনী ম্যাচসহ অন্তত তিনটি ম্যাচ মাঠের বাইরেই থাকতে হবে সাইফউদ্দিনকে। ২৪ নভেম্বর (মঙ্গলবার) বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর প্রতিপক্ষ বেক্সিমকো ঢাকা, ম্যাচ শুরু দুপুর দেড়টায়।

ঐ ম্যাচ ছাড়াও ২৬ নভেম্বর জেমকন খুলনা আর ২৮ নভেম্বর ফরচুন বরিশালের বিপক্ষেও খেলা আছে রাজশাহীর। অন্তত এই তিন ম্যাচে রাজশাহীর জন্য সাইফউদ্দিনের সার্ভিস পাাওয়া কঠিন। আগামী ২ ডিসেম্বর গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামেরব বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরতেও পারেন তিনি।

এআরবি/এসএএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]