মাঠেই শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করতে চান রিয়াদ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:৩৭ পিএম, ২৩ নভেম্বর ২০২০

কাগজে-কলমে এবারের বঙ্গবন্ধু কাপ টি-টোয়েন্টিতে ফেবারিট ধরা হচ্ছে জেমকন গ্রুপ খুলনাকেই। সাকিব আল হাসান এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ রয়েছে এই দলে। ওপেনিংয়ে ইমরুল কায়েসের সঙ্গে রয়েছেন এনামুল হক বিজয়। আরিফুল হক, জহুরুল ইসলাম অমি, শফিউল ইসলাম, আল আমিন হোসেন কিংবা লেগ স্পিনার রিশাদ হোসেন রয়েছেন খুলনা দলে।

এত এত তারকা যে দলে, সেই দলকে ফেবারিট না বলে উপায় নেই। তবে, দলটির অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ সেটা মানতে রাজি নন। তার কথা, মাঠের পারফরম্যান্সই সব ঠিক করে দেবে, কে সেরা, কে ফেবারিট। এ কারণে রিয়াদের একটাই লক্ষ্য, মাঠের পারফরম্যান্স দিয়ে নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করা।

আজ মিডিয়ার মুখোমুখি হয়ে রিয়াদ বলেন, ‘কাগজে-কলমে হয়তো আমাদের দলকে অনেক শক্তিশালী মনে হচ্ছে। তবে আমি সবসময়ই একটা কথা বিশ্বাস করি, মাঠের পারফরম্যান্সটা সবসময়ই মুখ্য থাকবে। আপনি যত বড় নামই থাকেন, যত ভালো ক্রিকেটারই হন। দিনশেষে আপনাকে মাঠে এটা প্রমাণ করতে হবে।’

নিজেদের প্রমাণ করার অনেক কিছু রয়েছে বলে মনে করেন রিয়াদ। তিনি বলেন, ‘ওই (সেরা খেলোয়াড়ের) রেপুটেশনটা যারা আমরা ধারণ করি, তাদের সবসময়ই প্রমাণের একটা তাগিদ থাকে এবং এটা থাকাটাই স্বাভাবিক। তো সে ক্ষেত্রে বলবো যে, অবশ্যই আমাদের প্রমাণের অনেক কিছু আছে। যেহেতু ঘরোয়ায় সেরা প্লেয়ারদের মধ্যে আমাদের প্রতিযোগিতাটা। তো সেটা প্রমাণের লক্ষ্যেই আমরা নামবো ইনশা আল্লাহ।’

সাকিবের ফেরার ফলে নিজেদের ভাগ্যাবানই ভাবছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তিনি বলেন, ‘ফিলিং ইজ গুড (সাকিবের ফেরায়)। আমরা সবাই জানি, সাকিবের গুরুত্ব কতটুকু। সেটা আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে হোক বা ঘরোয়াতে হোক। সে ক্ষেত্রে অবশ্যই আমরা সবাই খুশি ওর জন্য যে ও ব্যাক করেছে এবং ও আমাদের দলেই খেলছে। ইট ইজ এ ভেরি গুড থিং টু হ্যাভ।’

নিজে হয়েছিলেন করোনা আক্রান্ত। এখন শারীরিক কী অবস্থা? কিভাবে কামব্যাক করলেন, জানালেন রিয়াদ। তিনি বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, গত সপ্তাহে ১৬ তারিখ আমি নেগেটিভ প্রমাণিত হয়েছি। তো তারপর আমি বিশ্রাম নিয়েছিলাম দুই-তিন দিন। এরপর অনুশীলন শুরু করি। আলহামদুলিল্লাহ আমি এখন অনেক ভালো অনুভব করছি। আশাকরি ইনশা আল্লাহ আগামীকাল আমি ভাল করবো।’

এআরবি/আইএইচএস/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]