যে কারণে হাঁটু গেড়ে বসবে না দক্ষিণ আফ্রিকা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:২২ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের হাঁটুর চাপায় জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর কৃষ্ণাঙ্গদের অধিকার আন্দোলন ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ ছড়িয়ে পড়ে সারা বিশ্বে। যে আন্দোলনে সমর্থন জানিয়ে খেলার জগতেও হাঁটু গেড়ে প্রতিবাদ শুরু হয়।

তবে দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার কাগিসো রাবাদা জানালেন, তারা ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সাদা বলের আসন্ন সিরিজে হাঁটু গেড়ে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ আন্দোলনে শরিক হবেন না। কি কারণে? সেই ব্যাখ্যাও দিলেন রাবাদা।

গত সপ্তাহে দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ মার্ক বাউচার জানান, ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটারে’ সমর্থন জানিয়ে তার দল হাঁটু গেড়ে বসবে না। বরং তার বদলে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা যে ইস্যুকে সামনে এনেছেন, তাতে সমর্থন দেবেন তারা।

‘ক্রিকইনফো’র সঙ্গে আলাপে রাবাদা বলেন, ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটারকে আমি শতভাগ সমর্থন করি। আমিও এটা নিয়ে কথা বলেছি। তবে দলের সিদ্ধান্ত হলো, আমরা হাঁটু গেড়ে বসব না। বরং লিঙ্গ-ভিত্তিক সহিংসতার দিকে আমরা তাকাব এবং নিজেদের অন্য একটা বিষয়ে উৎসর্গ করব।’

তবে কৃষ্ণাঙ্গদের আন্দোলনকে তারা বাদ দেবেন না, সেটাও জানালেন রাবাদা। তিনি বলেন, ‘যদিও ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটারের প্রাসঙ্গিকতা সর্বদা থাকবে। এটা আমি সবসময়ই বিশ্বাস করি। আমি নিজে এটা নিয়ে কথা বলব। কিন্তু মার্ক জানিয়েছেন, দল হাঁটু গেড়ে বসবে না। সেটাই হবে।’

বাউচার জানিয়েছেন, দক্ষিণ আফ্রিকার খেলোয়াড়রা লিঙ্গ-ভিত্তিক সহিংসতার বিপক্ষে লড়াই এবং কোভিড-১৯ আক্রান্তদের প্রতি সহমর্মিতা পোষণে কালো আর্মব্যান্ড পরে মাঠে নামবেন।

এর আগে গত জুলাইয়ে থ্রিটিসি ম্যাচের সময় দক্ষিণ আফ্রিকার খেলোয়াড়, সব সাপোর্ট স্টাফসহ বোর্ড পরিচালক গ্রায়েম স্মিথও কালো আর্মব্যান্ড পরে এবং ম্যাচের আগে হাঁটু গেড়ে বসে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ আন্দোলনে একাত্মতা প্রকাশ করেন।

এমএমআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]