ওয়ার্নারকে নিয়ে লোকেশ রাহুলের কুৎসিত মন্তব্য, সমালোচনার ঝড়

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:০৫ পিএম, ৩০ নভেম্বর ২০২০

দুই ম্যাচের মধ্যে দুটিতেই গো-হারা হেরেছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। অস্ট্রেলিয়ার কাছে স্রেফ উড়ে গেছে বিরাট কোহলিরা। এ কারণেই হয়তো মাথা নষ্ট হয়ে গেছে দলটির উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লোকেশ রাহুলের। যে কারণে, ইনজুরি আক্রান্ত ডেভিড ওয়ার্নারকে নিয়ে কুৎসিত মন্তব্য করে বসলেন লোকেশ রাহুল। এরপরই অবশ্য সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে তার ওপর।

বলা হয়, কারও পৌষমাস তো কারও সর্বনাশ! ডেভিড ওয়ার্নারের চোটে যখন বড়সড় ধাক্কা অস্ট্রেলিয়া শিবিরে, তখন খুব খুশি লোকেশ রাহুল! শুধু খুশি হওয়াই নয়, মুখেও বলেছেন সে কথা। স্পোর্টসম্যানশিপ স্পিরিটের নামমাত্র নেই। এতেই নেটদুনিয়ায় তীব্র সমালোচনা ভারতীয় উইকেটরক্ষক।

সিডনিতে ভারতের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ফিল্ডিং করার সময় কুঁচকিতে চোট পেয়ে সিরিজ থেকে ছিটকে গেলেন ওয়ার্নার। ওয়ানডে নিয়ে মাথাব্যথা নেই অসি কোচ ল্যাঙ্গারের। কারণ, দু’টি ম্যাচ জিতে এরইমধ্যে সিরিজ তাদের পকেটে।

কিন্তু টি-টোয়েন্টি সিরিজ? সেখানে ওয়ার্নারকে পাওয়া যাবে না। শোনা যাচ্ছে, টেস্ট সিরিজেও তিনি অনিশ্চিত। তার পরিবর্তে সাদা বলের ক্রিকেটে (টি-টোয়েন্টি) ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ডি আর্কি শর্টকে দলে নিয়েছে।

ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার বাঁ-হাতি ওপেনার শর্ট শেষ দু’বছর বিগ ব্যাশে সবচেয়ে বেশি রান করেছেন। তাই শর্টের উপর ভরসা রাখছেন ল্যাঙ্গার। পাশাপাশি বিশ্রামে পাঠানো হয়েছে প্যাট কামিন্সকে। তিনিও টেস্টের আগে হলুদ জার্সিতে মাঠে নামছেন না।

কি বলেছিলেন লোকেশ রাহুল? সিরিজ হারের পর মিডিয়ার সামনে রাহুলকে প্রশ্ন করা হয়, ‘আপনি কি শুনেছেন চোটের কারণে ওয়ার্নার সিরিজের বাইরে? ছোট ফরম্যাটে খেলবেন না তিনি। টেস্টেও অনিশ্চিত!

শুনে খানিকটা রসিকতার ছলেই মন্তব্য করেন রাহুল। বলেন, ‘এটা অবশ্যই অস্ট্রেলিয়ার জন্য ক্ষতি। তবে আমরা চাইব ও যেন তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে মাঠে ফিরে না আসে। তাহলে আমাদেরই সুবিধা হবে।’

আর এতেই নেটদুনিয়ায় বিতর্কের ঝড় ওঠে। অনেকেই বলতে থাকেন, একজন ক্রিকেটারের চোট নিয়ে কেউ এভাবে কথা বলতে পারেন না। অন্য এক নেটিজেনের কথায়, রসিকতা করে বলে থাকলেও ঠিক করেননি রাহুল। স্পোর্টসম্যানশিপ স্পিরিট দেখানো উচিত ছিল তার। যদিও এখনও পর্যন্ত এ নিয়ে আর কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি রাহুল।

রোববার কুঁচকিতে চোট পাওয়ার পরই মাঠ থেকে সোজাসুজি ওয়ার্নারকে হাসপাতালে স্ক্যান করাতে নিয়ে যাওয়া হয়। স্ক্যান রিপোর্টে দেখে কপালে ভাঁজ কোচ ল্যাঙ্গারের। টেস্ট সিরিজের শুরুতে ওয়ার্নারকে পাওয়া যাবে কি না তা নিয়েও প্রশ্ন উঠে যায়। তার কবে ফিটনেস টেস্ট হবে, এখনও জানায়নি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। এমন হলে অন্তত প্রথম টেস্টের আগে আলাদা করে ভাবতে হবে অস্ট্রেলিয়াকে।

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]