লাথামের আক্ষেপ, অপেক্ষায় উইলিয়ামসন

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:০০ পিএম, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০

সেডন পার্কের পিচটাকে ঠিক মাঠের বাকি অংশ থেকে আলাদা করা যাচ্ছিল না। তার মধ্যে আবার বৃষ্টি হয়েছে অনেকটা সময়। সবুজ পিচে টস জিতে বোলিং বেছে নিতে তাই দ্বিতীয়বার ভাবেননি ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। কে জানতো, সেই সিদ্ধান্ত বুমেরাং হবে!

নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও জানিয়েছিলেন, টস জিতলে তিনিও ফিল্ডিংই নিতেন। তাই হোল্ডারকে দোষ দেয়ার উপায় নেই। ক্যারিবীয়রা বোলাররা তো শুরুটাও করেছিলেন দারুণ। কিন্তু প্রথম দিন শেষে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ দাঁড়িয়ে গেছে ২ উইকেটে ২৪৩ রানের।

৪ ওভার শেষে নিউজিল্যান্ডের বোর্ডে ছিল ১ উইকেটে ১৪ রান। শেনন গ্যাব্রিয়েলের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে উইল ইয়ং সাজঘরের পথ ধরেছেন ৫ রান করেই। চাপে তখন নিউজিল্যান্ড, কিন্তু সেই চাপ পরে আর ধরে রাখতে পারেনি সফরকারিরা। দ্বিতীয় উইকেটে ৫১ ওভারের বেশি ব্যাটিং করে ১৫৪ রানের বড় জুটি গড়েন টম লাথাম আর কেন উইলিয়ামসন।

সেঞ্চুরিটা প্রাপ্যই ছিল লাথামের। ঠিক টেস্টের ব্যাটিং যাকে বলে, দেখেশুনে দারুণভাবে এগোচ্ছিলেন কিউই ওপেনার। কিন্তু ৮৬ রানে পৌঁছানোর পর কেমার রোচের দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে স্ট্যাম্প হারিয়ে বসেন। ১৮৪ বল মোকাবেলায় গড়া লাথামের ইনিংসটিতে ছিল ১২ চার আর ১ ছক্কার মার।

হতাশার গল্প এরপর আরও দীর্ঘায়িতই হয়েছে ক্যারিবীয়দের। তৃতীয় উইকেটে রস টেলরকে নিয়ে ৭৫ রানের অবিচ্ছিন্ন এক জুটিতে যে উইকেট কামড়ে ধরেছেন রানমেশিন উইলিয়ামসন।

নিজের মাস্টারক্লাস দেখিয়ে ক্যারিয়ারের ২২তম সেঞ্চুরির দোরগোড়ায় কিউই দলপতি। ২১৯ বলে ১৬ বাউন্ডারিতে অপরাজিত আছেন ৯৭ রানে। সঙ্গে ৩১ রান নিয়ে ব্যাট করছেন আরেক অভিজ্ঞ সেনানী টেলর।

এমএমআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]