কোন দলে খেলবেন মাশরাফি, নির্ধারিত হবে লটারিতে

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:৩৮ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০

করোনা ও ইনজুরি কাটিয়ে তিনি মাঠে ফিরতে মুখিয়ে। রানিংয়ের পর স্পট বোলিং অনুশীলনও করছেন। ওদিকে মাশরাফি বিন মর্তুজাকে পেতে দলগুলোও মরিয়া।

প্রথমে মনে হচ্ছিল শুধু ফরচুন বরিশালই বুঝি আগ্রহী। পরে জানা গেল জেমকন খুলনাও মাশরাফিকে দলে পেতে চায়। বরিশাল চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান ভিডিও বার্তায় জানিয়েছেন, তারা মাশরাফিকে খেলাতে চান। ওদিকে জেমকন খুলনার ম্যানেজার নাফিস ইকবালও মাশরাফির ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

সর্বশেষ মিনিস্টার রাজশাহীর ম্যানেজার হান্নান সরকার আজ শনিবার প্রকাশ্যেই মাশরাফিকে দলে নেয়ার আগ্রহ দেখিয়েছেন। দলটির কোচ সারোয়ার ইমরান শনিবার সন্ধ্যায় জাগো নিউজকে জানিয়েছেন, স্পন্সররা মাশরাফিকে দলে পেতে চান।

এই তিন দলের বাইরে বেক্সিমকো ঢাকাও নাকি আগ্রহী। শেরেবাংলার আশপাশে গুঞ্জন, গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম ছাড়া বাকি চার দলই ভেতরে ভেতরে নড়াইল এক্সপ্রেসকে দলে টানার কথা ভাবছে।

বোঝাই যাচ্ছে, মধ্য তিরিশের মাশরাফির প্রতি এখনো সবার আস্থা ও বিশ্বাস প্রচুর। সবারই বিশ্বাস মাশরাফি দলে আসা মানেই ড্রেসিং রুম চাঙ্গা হওয়া। দলের আত্মবিশ্বাস এবং আস্থা বেড়ে যাওয়া। সর্বোপরি দলের ভেতরের বন্ধনটা আরও দৃঢ় হওয়া।

ধরে নেয়া হচ্ছে খেলাটি যেহেতু ২০ ওভারের, ৪ ওভারের স্পেল করতে মাশরাফির খুব বেশি শক্তি ও এনার্জি ক্ষয় হবে না। বরং তার নিখুঁত লাইন ও লেন্থের বোলিংটা হতে পারে বাড়তি পাওয়া। অবশ্য এসব নির্ভর করছে মাশরাফি আসলে শতভাগ ফিট কি না তার ওপর?

তবে ভেতরের খবর মাশরাফি ফিট হলে আর জাতীয় দলের ট্রেনাররা তাকে ফিট মনে করলে মাশরাফি হয়তো আগামী এক দুই রাউন্ড পরই মাঠে নামতে পারেন।

এখন প্রশ্ন হলো মাশরাফি কোন দলে খেলবেন? তাকে পেতে চায় প্রায় সব দলই। এখন তিন-চার দল যখন আগ্রহী, তাহলে মাশরাফি কোন নিয়ম ও ক্রাইটেরিয়ায় কোন দলে খেলবেন?

প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু দিয়েছেন এসব প্রশ্নের জবাব। তিনি শনিবার সন্ধ্যায় জাগো নিউজকে বলেন, ‘আগে মাশরাফি খেলার মতো অবস্থায় আসুক। তকে আগে ফিটনেস টেস্টের মুখোমুখি হতে হবে। এরপর ম্যাচ ফিটনেস ফিরে আসলে সে ঠিকই খেলবে।’

তাকে তিন-চারটি দল পেতে আগ্রহী, তাহলে কোন নিয়মে কোন দলে খেলবে মাশরাফি? প্রধান নির্বাচকের সোজা ব্যাখ্যা, ‘আমরা তো আগেই জানিয়ে রেখেছি, সব দলকেই বলা আছে। যে বা যারাই আগ্রহ প্রকাশ করুক না কেন, একাধিক দল মাশরাফিকে নিতে চাইলে লটারি হবে। উন্মুক্ত ওই লটারিতে যে দলের নাম উঠবে, সেই দলেই খেলবেন মাশরাফি।’

এআরবি/আইএইচএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]