স্পিন বান্ধব উইকেটে সফলতার গোপন রহস্য জানেন রোচ!

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১০:১১ পিএম, ২৬ জানুয়ারি ২০২১

ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডকেও টেস্টে হারানোর রেকর্ড আছে বাংলাদেশের। কাজেই টাইগাররা শুধু দেশের মাটিতে ওয়ানডেই ভাল খেলে, টেস্টে পারে না, এমন ভাবারও কোন কারণ নেই। তাই ধরেই নেয়া হচ্ছে, ওয়ানডের মত টেস্টে ফেবারিটের তকমা এঁটেই মাঠে নামবে মুমিনুল হকের দল।

ওদিকে প্রতিপক্ষ ওয়েষ্ট ইন্ডিজও টেস্টে নিজেদের অন্যরকম দল ভাবছে। দলটির ফাস্ট বোলার কেমার রোচ মনে করেন, ওয়ানডের তুলনায় টেস্টের দলটি হবে ভিন্ন এবং টেস্ট দল সম্পর্কে খানিক উচ্চাশাও তার কণ্ঠে।

তিনি বলেন, ‘বুঝতে হবে ওয়ানডে দলটি ছিল তারুণ্য নির্ভর ও খুবই অনভিজ্ঞ। এটা ছিল তাদের শিক্ষার সময়, সে তুলনায় টেস্ট দলে কিছু পরীক্ষিত পারফরমার আছেন। যারা এর আগে বাংলাদেশে খেলে গেছেন।’

রোচ আরও যোগ করেন, ‘আমরা জানি কী প্রত্যাশা করতে হবে। আমার আশা, টেস্টের পারফরমাররা ভালো করবেন। তারা অনেক বেশি ফাইট করবে এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য জয় বয়ে আনবে।’

রোচ মানছেন বাংলাদেশ সফর সব সময়ই কঠিন। তাই তাদের (ওয়েস্ট ইন্ডিজের) ইতিবাচক মানসিকতায় খেলতে হবে এবং নিজেদের লক্ষ্য ও পরিকল্পনার যথাযথ বাস্তবায়ন ঘটাতে হবে। রোচ বলেন, ‘ছেলেরা গত তিন সপ্তাহ ধরে কঠোর পরিশ্রম করছে। আমরা জানি আমাদের স্কোর বোর্ডে একটা ভাল স্কোর দাঁড় করাতে হবে এবং প্রতিপক্ষের ২০ উইকেটের পতন ঘটাতেও হবে। সবকথার শেষ কথা হলো মাঠে সামর্থ্যের সর্বোত্তম প্রয়োগ ঘটাতে হবে।’

এদিকে নিজ দলের বোলিং ইউনিট নিয়ে খানিক আশার আলো দেখছেন কেমার রোচের। তার মূল্যায়ন, ‘শ্যানন ভাল ফর্মে আছে। আমি নিজেও ঠিক আছি। তবে দলটি অনভিজ্ঞ। আমাদেরকে পারফরম করতে হবে।’

রোচের আশা একটি ভাল টেস্ট সিরিজ হবে এবং একটিতে তারাই শেষ হাসি হাসবেন। বাংলাদেশের পিচ সব সময়ই স্পিন বান্ধব। তবে রোচের ধারনা, এই পিচে ফাষ্ট বোলাররাও অনেক কিছু করতে পারে।

তিনি বলেন, ‘আসল কথা হলো লক্ষ্য ও পরিকল্পনা ঠিক থাকতে হবে। বোলিংটা হতে হবে ডিসিপ্লিন্ড।’

সে কাজটা সহজ হবে না, তাও জানা আছে এ ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ফাস্ট বোলারের। তিনি বলেন, ‘এ দেশের পিচে ফাস্ট বোলারদের জন্য সফল হওয়া কঠিন। স্পিড আর সিম ম্যুভমেনট দুই’ই এখানে কম। এখানে ধারাবাহিকভাবে ভাল ও সঠিক জায়গায় বল ফেলতে পারাটাই আসল। এখানে সোজা লেন্থে বল ফেলে ব্যাটসম্যানকে সামনের পায়ে খেলার চ্যালেঞ্জ দিতে হবে। সেটাই বাংলাদেশে সফল হবার গোপন রহস্য।’
স্বাগতিক মিডল অর্ডার ব্যাটিংয়ে কাঁপন ধরাতে যত শীঘ্রই সম্ভব রিভার্স সুইং করানোর তাগিদও অনুভব করছেন রোচ।

এআরবি/এসএএস/আইএইচএস/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]