বৃহস্পতিবার থেকে গুচ্ছ অনুশীলন, ১০ মার্চ কুইন্সটাউন যাত্রা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০২:৩৫ পিএম, ০১ মার্চ ২০২১

সবার জানা, নিউজিল্যান্ডে এখনও হোটেল রুমে আটকা টিম বাংলাদেশ। ক্রিকেটার, কোচিং-সাপোর্টিং স্টাফ আর অফিসিয়ালসদের নিজ নিজ হোটেল রুমেই কাটছে সময। মাঠে প্র্যাকটিস করা বহু দূরে, এখনও খোলা খোলা আকাশের নিচে যাওয়ার সুযোগ হয়নি। গত শুক্রবার থেকে মিলেছে আধঘণ্টা করে বাইরে হাঁটার সুযোগ।

নিউজিল্যান্ড পৌঁছানোর পর আজ (সোমবার) পঞ্চম দিন। আগামীকাল, ষষ্ঠ দিন হবে তৃতীয় দফা করোনা টেস্ট। সব কিছু ঠিক থাকলে সপ্তম দিন অর্থাৎ বুধবার থেকে ৫ জন করে ভাগ হয়ে জিম আর অষ্টম দিন থেকে সমান ভাগে বিভক্ত হয়ে খোলা আকাশের নিচে গুচ্ছ অনুশীলনের সুযোগ মিলবে।

তবে একদম মুক্ত বিহঙ্গ হতে দেরি আছে এখনও। সব কিছু ঠিক থাকলে অর্থাৎ চতুর্থ দফা কোভিড-১৯ টেস্টে সবাই নেগেটিভ থাকলে আগামী ১০ মার্চ থেকে একদম মুক্তভাবে চলাফেরা করতে পারবে টাইগাররা।

এবারের নিউজিল্যান্ড সফরে টিম বাংলাদেশের লিডার হয়ে যাওয়া বিসিবি সিনিয়র পরিচালক ও মিডিয়া কমিটি চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জানিয়েছেন, সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী ১০ মার্চ জাতীয় দলের বহর ক্রাইস্টচার্চ থেকে উড়ে যাবে কুইন্সটাউন।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের লীলা নিকেতন কুইন্সটাউনেই চলবে পরের ধাপের অনুশীলন। সেখানে সপ্তাহ খানেক অনুশীলনের পর গন্তব্য ডানেডিন। সে শহরে ২০ মার্চ ব্ল্যাকক্যাপ্সদের সঙ্গে টাইগাদের প্রথম ওয়ানডে।

সোমবার দুপুরে জাগো নিউজের সঙ্গে মুঠোফোন আলাপে জালাল ইউনুস জানান, দলের সবাই সুস্থ আছে। থাকা-খাওয়ায় কোন অসুবিধা নেই। তবে কোয়ারেন্টাইন প্রটোকলে আমরা এখনও হোটেল রুমে বন্দী। সবকিছু ঠিক মত চললে আগামী ১০ মার্চ একদম ফ্রি হয়ে যাব। তখন আর এই ক্রাইস্টচার্চেও থাকব না। আমাদের গন্তব্য হবে কুইন্সটাউন।

জালাল যোগ করেন, ক্রাইস্টচার্চ থেকে মাত্র ১ ঘন্টার ফ্লাইট কুইন্সটাউন। এর আগে তৃতীয় দফা করোনা টেস্ট নেগেটিভ হলে ৪ মার্চ থেকে খোলা আকাশের নিচে বের হওয়ার অনুমতি মিলবে। তখন ৫ জনের দল সাজিয়ে জিম করা যাবে। আর তারপর দিন থেকে ঐ ছোট ছোট বহরে ভাগ হয়ে অনুশীলন করাও যাবে।

এআরবি/এসএএস/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]