ভারতকে আরও ভালো দল ভেবেছিলেন শোয়েব

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৩৪ পিএম, ০২ মার্চ ২০২১

আহমেদাবাদ টেস্টের পিচ নিয়ে আলোচনা যেন থামছেই না! গত শুক্রবার শেষ হয়ে যাওয়া এ ম্যাচের আলোচনায় এবার যোগ দিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক গতিতারকা শোয়েব আখতার। তার ধারণা ছিল, নিজেদের ঘরের মাঠে উইকেটের বাড়তি সুবিধা না নিয়েই ইংল্যান্ডকে হারাতে পারবে ভারত। কিন্তু এখন সেটি ভুল প্রমাণিত হয়েছে।

ভারত ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার চলতি সিরিজের তৃতীয় ম্যাচটিতে ভারত পেয়েছে ১০ উইকেটের বড় জয়। ম্যাচের প্রথম দিনের প্রথম ঘণ্টা থেকেই একপ্রান্তে শুরু হয়ে যায় বড় বড় সব টার্ন। নরম মাটির উইকেটে সেসব টার্নের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারেনি দুই দল। ইংল্যান্ড নিজেদের দুই ইনিংসে অলআউট হয়েছে ১১২ ও ৮১ রানে, ভারত প্রথম ইনিংসে থেমেছে মাত্র ১৪৫ রানে।

এমন উইকেটে টেস্ট ক্রিকেট ঠিক মানতে পারছেন না শোয়েব। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে দেয়া এক ভিডিওবার্তায় এ বিষয়ে সোজাসাপ্টা কথা বলেছেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেসখ্যাত এ পেসার। ঘরের মাঠে সুবিধা বলতে যদি এমন উইকেট বোঝায়, তাহলে সেটির পক্ষে নন শোয়েব।

তিনি বলেছেন, ‘টেস্ট ম্যাচ কি এমন উইকেটে খেলা উচিত? একদমই না। যে পিচে অতিরিক্ত স্পিন ধরে, মাত্র দুই দিনে ম্যাচ শেষ হয়ে যায়, তা মোটেও টেস্ট ক্রিকেটের জন্য ভালো নয়।’

শোয়েব আরও যোগ করেন, ‘আমি ঘরের মাঠের সুবিধা নেয়ার বিষয়টি বুঝতে পারি। কিন্তু এমন সুবিধা নেয়া হলে সেটা অনেক বাড়াবাড়ি। এমন যদি হতো যে, ভারত ৪০০ করেছে এবং ইংল্যান্ড ২০০ রানে গুটিয়ে গেছে, তাহলে বলা যেত যে ইংল্যান্ড বাজে ক্রিকেট খেলেছে। কিন্তু এখানে ভারত নিজেরাই ১৪৫ রানে অলআউট হয়ে গেছে।’

এসময় তিনি তুলে ধরেন ভারতের সবশেষ অস্ট্রেলিয়া সফরের উদাহরণ। যেখানে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে গিয়ে, অস্ট্রেলিয়ার সুবিধামতো বানানো পিচে খেলে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে এসেছিল ভারত। যা দেখে ভারতীয় দলের ব্যাপারে উচ্চ ধারণা জন্মেছিল শোয়েবের। কিন্তু এখন তিনি বুঝতে পারছেন, ভারত আসলে অত বড় দল নয়।

শোয়েবের ভাষ্য, ‘আমি ভেবেছিলাম ভারত এর চেয়ে অনেক ভালো, অনেক বড় দল। আমার মতে, এখানে যদি সমান সুযোগ পিচ দেয়া হয়, তাও ইংল্যান্ডকে হারাতে পারবে ভারত। তাদের (ভারত) তো ভয় পাওয়ার কারণ নেই। এমন উইকেট বানানোরও প্রয়োজন নেই। আমরা কি এডিলেইডে ভারতের পছন্দমতো উইকেট বানাই? মেলবোর্নের উইকেট কি ভারতের মনমতো ছিল? তারা সেখানে সিরিজ জিতেছে কীভাবে?’

তিনি আরও বলেন, ‘আপনি সমান সুযোগের মাঠ এবং কন্ডিশনে খেলুন, তাহলে বলতে পারবেন যে দেখো, আমরা ঘরে-বাইরে দুই জায়গায়ই ভাল খেলতে পারি। তাই আমার মতে, ভারতকে একটা বিষয় বুঝতে হবে। তারা এর চেয়ে ভালো দল। এমন উইকেটে খেলার চেয়ে আরও ভালো, অনেক ভালো দল তোমরা। ঘরের মাঠের সুবিধা তৃতীয়-চতুর্থ দিনে নাও। কিন্তু আফসোস, এখানে জো রুটও উইকেট নিচ্ছে।’

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]