ছক্কার সেঞ্চুরিতে ষষ্ঠ অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:০০ পিএম, ০৫ মার্চ ২০২১

নিউজিল্যান্ডের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের বিপক্ষে একদমই হাত খুলতে পারছিলেন না অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক ও ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ। ইনিংসের শেষ ওভার হওয়ার আগে তার সংগ্রহ ছিল ৪৯ বল মাত্র ৫৩ রান। সেই ফিঞ্চই ইনিংস শেষ করেছেন ৫৫ বলে ৭৯ রান নিয়ে। অর্থাৎ শেষ ওভার থেকে তুলে নিয়েছেন ২৬টি রান।

কাইল জ্যামিসনের করা শেষ ওভারে ঝড় তুলে চারটি ছক্কা হাঁকিয়েছেন ফিঞ্চ। একইসঙ্গে পূরণ করেছেন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে নিজের ছক্কার সেঞ্চুরি। ইনিংস শেষে তার ছক্কার সংখ্যা এখন ১০৩টি। অস্ট্রেলিয়ার প্রথম এবং সবমিলিয়ে ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এই সেঞ্চুরি করলেন অসি অধিনায়ক।

ফিঞ্চের ৭৯ রানের ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৫৬ রানের সংগ্রহ দাঁড় করাতে পেরেছে অস্ট্রেলিয়া। অর্থাৎ দলের অর্ধেকের বেশি রান করেছেন ফিঞ্চ একাই। সিরিজের চতুর্থ ম্যাচটি জিতে শিরোপা নিজেদের করতে নিউজিল্যান্ডকে করতে হবে ১৫৭ রান। অন্যদিকে সমতা ফেরাতে কিউইদের এ রানের মধ্যে আটকে হবে অস্ট্রেলিয়াকে।

ওয়েলিংটনের ওয়েস্ট প্যাক স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় অস্ট্রেলিয়া। অধিনায়ক ফিঞ্চ ব্যতীত ব্যাটসম্যানদের আর কেউই তেমন সুবিধা করতে পারেননি। মার্কাস স্টয়নিস ১৯, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ১৮, ম্যাথু ওয়েড ১৪ এবং জশ ফিলিপ করেছেন ১৩ রান। যা বিপদে ফেলে দেয় দলকে।

এমনকি ব্যাটিংয়ের শুরুতে খুব একটা ছন্দ খুঁজে পাননি ফিঞ্চও। শেষ ওভারে ৪টি ছক্কা হাঁকিয়ে নিজের ইনিংসের পাশাপাশি দলীয় সংগ্রহটাকেও ভদ্রস্থ করেন অধিনায়ক। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ফিঞ্চের এটি ১৪তম অর্ধশতক। সবধরনের টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে ফিঞ্চের ছক্কার সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৯৫টি।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সবচেয়ে বেশি ছক্কা
১/ মার্টিন গাপটিল (নিউজিল্যান্ড) - ৯৩ ইনিংসে ১৩৫ ছক্কা
২/ রোহিত শর্মা (ভারত) - ১০০ ইনিংসে ১২৭ ছক্কা
৩/ ইয়ন মরগ্যান (ইংল্যান্ড) - ৯৪ ইনিংসে ১১৩ ছক্কা
৪/ কলিন মুনরো (নিউজিল্যান্ড) - ৬২ ইনিংসে ১০৭ ছক্কা
৫/ ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ) - ৫৫ ইনিংসে ১০৫ ছক্কা
৬/ অ্যারন ফিঞ্চ (অস্ট্রেলিয়া) - ৭০ ইনিংসে ১০৩ ছক্কা

এখনও খেলে যাচ্ছেন এমন ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ছক্কার সেঞ্চুরির কাছাকাছি রয়েছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (৯৩), ডেভিড ওয়ার্নার (৮৯), কাইরন পোলার্ড (৮৪), বিরাট কোহলি (৮১)।

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]