মুম্বাইর ধাঁধাঁ ভাঙতে পারবে তো আজ কেকেআর!

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:২৬ পিএম, ১৩ এপ্রিল ২০২১

প্রথম চিত্র : এবারের আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচে হেরেছে রোহিত শর্মার দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর কাছে হার দিয়ে টানা ৯ম বছর আইপিএলে নিজেদের প্রথম ম্যাচে হারের ধারা বজায় রাখলো মুম্বাইর দলটি।

অন্য দিকে, এবারের আইপিএলে প্রথম ম্যাচেই জয় পেয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। নিজেদের প্রথম ম্যাচে তারা ১০ রানে হারিয়েছে ডেভিড ওয়ার্নারের দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে।

দ্বিতীয় চিত্র : আইপিএলে কেকেআরের সামনে যেন পুরোপুরি যমের নাম মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। এ পর্যন্ত আইপিএলের ইতিহাসে দুই দল ২৭বার মুখোমুখি হয়ে মুম্বাই জিতেছে ২১বার। এর মধ্যে সর্বশেষ ১০ বারের মধ্যেই ৯ বার মুম্বাইর কাছে হেরেছে কেকেআর। অন্যদিকে ২০১৩ সালের পর থেকে এখনও পর্যন্ত আইপিএলের কোনো উদ্বোধনী ম্যাচেই জয় পায়নি রোহিতের মুম্বাই।

অর্থ্যাৎ, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স হচ্ছে কেকেআরের সামনে বিশাল এক ধাঁধাঁর নাম। আবার এই মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের জন্য বিশাল ধাঁধাঁর নাম নিজেদের প্রথম ম্যাচ। অথচ, আইপিএলে সবচেয়ে সফল দল হচ্ছে এই দলটিই। এখনও পর্যন্ত ৫বার শিরোপা জিতেছে তারা। এর মধ্যে টানা দুইবার। এবার জিতলে হবে হ্যাটট্রিক।

এমন পরিস্থিতিতে আজ মুম্বাই ধাঁধাঁ কাটানোর জন্য রোহিত শর্মাদের মুখোমুখি হবে কলকাতা নাইটরাইডার্স। চেন্নাইয়ের এম চিদাম্বরম স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় শুরু হবে ম্যাচটি। যদিও প্রথম ম্যাচে জয় পাওয়া কেকেআর খুবই আত্মবিশ্বাসী যে, তারা এবার এই ধাঁধাঁ কাটিয়ে উঠতে পারবে।

কেকেআরের অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যান তেমনটাই আশা করছেন। আর তার সবচেয়ে বড় শক্তি হলো দলের ব্যাটিং লাইনআপ। কেকেআরের ব্যাটিং শুধু সেরা নয়, বিধ্বংসীও বটে।

নিতিশ রানা এবং রাহুল ত্রিপাঠির দাপটে সানরাইজার্সকে ১০ রানে হারিয়ে আইপিএল অভিযান শুরু করে কেকেআর। সানরাইজার্সের বোলার ভুবনেশ্বর কুমার, টি-নটরাজনদের ছারখার করে ৮০ রান করে যান রানা। হাফ সেঞ্চুরি করেন রাহুল ত্রিপাঠিও।

কিন্তু সেই জয় উপভোগ করার সময় নেই। কারণ আজই মুম্বাই’র বিপক্ষে মাঠে নামতে হচ্ছে কেকেআরকে। মুম্বাইয়ের বিপক্ষে আগের ইতিহাস নিয়ে মোটেও চিন্তিত নন কেকেআর অধিনায়ক মরগ্যান। বরং দলের ব্যাটিং দেখার পর কেকেআর অধিনায়ক খেলা শেষে সাংবাদিকদের বলেছেন, তার দলের অন্যতম শক্তি হল ব্যাটিং।

তিনি বলেন, ‘আমাদের দলের হয়ে ভারতের সেরা দুই প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান ওপেন করে। আমি শুভমান গিল আর নিতিশ রানার কথা বলছি। এরপর তিন নম্বরে নামে রাহুল ত্রিপাঠি। যে কি না হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত খেলল। এরপর আমাদের মিডল অর্ডার। এরকম বৈচিত্রপূর্ণ মিডল অর্ডার খুব কমই আছে আইপিএলে। দিনেশ যখন ওরকম খেলে, আন্দ্রে যখন নিজের খেলাটা খেলে, তখন আমাদের ব্যাটিংকে বিধ্বংসী মনে হয়। দেখলে মনে হয়, আমাদের ব্যাটিং যে কোনও ম্যাচ জিতিয়ে দিতে পারে’- বলছেন মর্গ্যান।

শুধু ব্যাটিংয়েই নয়, বোলিংয়ে বেশ বিধ্বংসী কেকেআর। প্যাট কামিন্স রয়েছেন। প্রাসিদ কৃষ্ণা, হরভজন সিং, আন্দ্রে রাসেলের সঙ্গে রয়েছেন সাকিব আল হাসান। যিনি নিজেকে প্রমাণ করেছেন, কেন তাকে নেয়া হলো সুনিল নারিনের পরিবর্তে।

অন্যদিকে মুম্বাই আজ দলে পাচ্ছে কুইন্টন ডি কককে। কোয়ারেন্টাইন শেষ করে খেলার জন্য পুরো প্রস্তুত তিনি। অন্যদিকে পেস বোলিংয়ে মুম্বাই এগিয়ে অনেকটাই। জসপ্রিত বুমরাহ, ট্রেন্ট বোল্টরা রয়েছেন। সুতরাং, কেকেআরের জন্য বিষয়টা সহজ হবে তা নয়।

আইএইচএস/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]