শ্রীলঙ্কার ভবিষ্যত রাঙাবে চার তরুণ ক্রিকেটার

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:৫৭ এএম, ২০ এপ্রিল ২০২১

গত কয়েকবছর ধরে নিম্নমুখী শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের পারফরম্যান্স। ২০১৫ সালের পর কুমার সাঙ্গাকারা, মাহেলা জয়াবর্ধনে, তিলকারাত্নে দিলশানরা অবসর নেয়ার পর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি লঙ্কানরা। তবে আসন্ন দিনগুলোতে দলের দায়িত্ব নিতে পারবে এমন চার ক্রিকেটার খুঁজে পেয়েছেন শ্রীলঙ্কার কোচ মিকি আর্থুর।

লঙ্কান হেড কোচের মতে, তিন ফরম্যাটেই নিজেদের সামর্থ্যের সর্বোচ্চটা দিতে পারবেন ভানিন্দু হাসারাঙ্গা, পাথুম নিসাঙ্কা, ওশাদা ফার্নান্দো এবং লাসিথ এম্বুলদেনিয়া। তাদের কাঁধে ভর করে তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটেই র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি করবে শ্রীলঙ্কা- এমনটাই আশা আর্থুরের।

এ চারজনের বাইরে কুশল মেন্ডিসকে ঘিরেও অনেক আশা লঙ্কান কোচের। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের দলে না থাকা কুশলকে এবার বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজেও হয়তো রাখা হবে না। যদিও তার সামর্থ্য সম্পর্কে কোনো সন্দেহ নেই লঙ্কান কোচিং স্টাফের।

ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে দেয়া সাক্ষাৎকারে আর্থুর বলেছেন, ‘ওশাদা এরই মধ্যে নিজের সামর্থ্যের জানান দিয়েছে। বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ তিন নম্বর পজিশনে ক্রমেই উন্নতি করে যাচ্ছে সে। আমি মনে করি কুশল মেন্ডিসও আমাদের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়। তার সেরাটা আদায় করাও আমার পরিকল্পনায় রয়েছে।’

তরুণ মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান পাথুম নিসাঙ্কার ব্যাপারে আর্থুরের ভাষ্য, ‘বর্তমানে পাথুম নিসাঙ্কাকে দেখতে খুবই ভালো লাগে। অবশ্যই টেস্ট ক্রিকেটে সে শ্রীলঙ্কা দলকে এগিয়ে নিয়ে যাবে এবং ওয়ানডেতে তার বড় ভূমিকা থাকবে। আর টি-টোয়েন্টিতে কীভাবে নিজেকে এগিয়ে নেয় সেটাই এখন দেখার।’

২২ বছর বয়সী নিসাঙ্কা ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের টেস্ট সিরিজে দারুণ ব্যাটিং করেছেন। টেস্টের তিন ইনিংসে তার সংগ্রহ ছিল ৯, ১০৩ ও ৫১ রান। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ৬৬ গড়ে সাড়ে তিন হাজারের বেশি রান রয়েছে তার নামের পাশে। যার ফলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সঙ্গে মানিয়ে নিতে কোনো সমস্যা হয়নি নিসাঙ্কার।

এদিকে স্পিন বোলিংয়ের ক্ষেত্রে আর্থুরের চোখ হাসারাঙ্গা ও এম্বুলদেনিয়ার ওপর। গত কয়েক বছরে শ্রীলঙ্কার হয়ে তিন ফরম্যাটেই মাতিয়েছেন হাসারাঙ্গা। যেকোনো কঠিন পরিস্থিতিতে সামনে থেকে পারফর্ম করার গুণের কারণেই আর্থুরের অধিক প্রিয় এ স্পিনিং অলরাউন্ডার।

হাসারাঙ্গার ব্যাপারে নিজের মূল্যায়ন জানিয়ে আর্থুর বলেছেন, ‘সেরা খেলোয়াড়দের সব গুণ রয়েছে হাসারাঙ্গার মধ্যে। যখন ম্যাচ কঠিন হয়ে যায়, তখন সে বল হাতে নিতে চায়। ব্যাটিংয়ের সময় যখন পরিস্থিতি জটিল থাকে, তখন সে ব্যাট হাতে উইনিং রান করতে চায়। তার মধ্যে সেই দৃঢ় সংকল্প রয়েছে। সে সবসময় ব্যাটিং, বোলিং বা ফিল্ডিং দিয়ে ম্যাচের ফল নির্ধারণ করতে চায়।’

ইনজুরির কারণে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজে খেলতে পারবেন না বাঁহাতি স্পিনার এম্বুলদেনিয়া। তবে তাকেও নিজের হিসেবের মধ্যেই রাখছেন আর্থুর, ‘এম্বুলদেনিয়া অসাধারণ একজন বোলার হতে চলেছে। সে এখনও তরুণ। নিজের সামর্থ্যের ওপর একটু বিশ্বাস রয়েছে তার। আমার মনে হয়, সে নিজেও জানে না আসলে কতটা ভালো বোলার সে।’

এসএএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]