শান্তকে যে দুই শট খেলতে নিষেধ করেছিলেন সুজন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১০:০৬ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০২১

মাঝে তাকে নিয়ে নানা কথাবার্তা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচক মহল সরব খালেদ মাহমুদ সুজনকে নিয়ে। নানা মুখরোচক ও ব্যাঙ্গ বিদ্রুপও হয়, হয়েছে তাকে ঘিরে। বেশ কিছুদিন তিনি জাতীয় দলের সাথেও ছিলেন না।

প্রায় দেড় বছর পর আবার জাতীয় দলের সঙ্গী খালেদ মাহমুদ সুজন। তবে এবার আর ক্রিকেট বা ট্যুর ম্যানেজার হিসেবে নয়। দলনেতা হয়ে। নিউজিল্যান্ড সফর থেকেই বোর্ডের একজন শীর্ষ কর্তাকে জাতীয় দলের সাথে শেফ দ্য মিশন করে পাঠানো হচ্ছে। নিউজিল্যান্ড সফরে ছিলেন বোর্ডের সিনিয়র পরিচালক জালাল ইউনুস। এবার শ্রীলঙ্কা সফরে খালেদ মাহমুদ সুজন।

আজ বুধবার খেলা চলাকালীন টিভি পর্দায় বার কয়েক দেখা গেছে ড্রেসিং রুমে হাস্যোজ্জ্ব খালেদ মাহমুদ ক্রিকেটারদের সাথে খোশগল্পে মত্ত। আর প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো এবং পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন বাইরে বসে।

যারা খুব কাছ থেকে তাকে চেনেন, জানেন- তাদের জানা খালেদ মাহমুদ সুজন দলনেতা আর শেফ দ্য মিশন- যে পদেই থাকুন না কেন; কিন্তু দলের সাথে থাকা মানেই উপদেষ্টা কোচের ভূমিকায় অবতীর্ণ হওয়া এবং ভেতরের খবর হলো আজ থেকে শুরু হওয়া ক্যান্ডি টেস্টেও সুজন উপদেষ্টা কোচের ভূমিকাতেই ছিলেন।

বুধবার সন্ধ্যার পর জাগো নিউজের সাথে শ্রীলঙ্কা থেকে মুঠোফোন আলাপে অবশ্য সরাসরি এমন কথা বলেননি সুজন। তবে কিছু কথায় ও হাবভাবে বোঝা গেছে, ক্রিকেটারদের চাঙ্গা করা এবং শেষ মুহূর্তের টিপস দিতে ভুল হয়নি তার।

তাইতো শান্তর শতরান নিয়ে কথা বলতে গিয়ে সুজনের নিজের মুখের সংলাপ, আমি শান্তকে খুব ভাল চিনি, জানি। আবাহনীতে খেলার কারণে ওকে গত কয়েক বছর খুব কাছ থেকে দেখেছি। ওর সামর্থ্য, প্লাস-মাইনাস আর সীমাবদ্ধতা, দুর্বলতা অনেক কিছুই আমার খুব ভাল জানা। আমি জানি ওর শুরুতেই অফস্ট্যাম্পের বাইরে স্কোয়ার কাট আর অনসাইডে ফ্লিক খেলার প্রবণতা খুব বেশি। আজ তাই ব্যাটিংয়ে নামার আগে শান্তকে বার বার বলে দিয়েছি, শোন উইকেটে সেট হওয়ার আগে কিছুতেই অফস্ট্যাম্পের বাইরে স্কোয়ার কাট আর ফ্লিক খেলবি না। এবং সে কথা রেখেছে শান্ত। এক দুই বার অফস্টাম্পের বাইরে চালিয়ে দিলেও পর মুহূর্তে নিজেকে সংযত করে নিয়েছে।’

এআরবি/আইএইচএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]