৮ বছরের ‘বোঝা’ কাঁধ থেকে নামালেন মুমিনুল

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১২:২১ পিএম, ২২ এপ্রিল ২০২১

কী আশ্চর্য! ২০১৩ সালে এই শ্রীলঙ্কার মাটিতে টেস্ট ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন। গলে প্রথম ব্যাট হাতে মাঠে নেমেই হাফ সেঞ্চুরি (৫৫) হাঁকিয়েছিলেন। পরের টেস্টেও তার ব্যাট পঞ্চাশ ছুঁয়েছিল। আট বছর পর সেই শ্রীলঙ্কাতেই এবার সেঞ্চুরির দেখা পেলেন মুমিনুল হক। যে সেঞ্চুরিটা তার কাঁধ থেকে নামিয়ে দিল পাহাড়সমান এক বোঝা। এখন আর কেউ বলতে পারবেন না, মুমিনুল দেশের বাইরে পারেন না।

বাংলাদেশি কোনো ব্যাটসম্যানের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১০টি টেস্ট সেঞ্চুরি মুমিনুলের। তিনি মাঠে নামা মানেই দলের স্বস্তি। কিন্তু এই মুমিনুল তার এত বছরের ক্যারিয়ারে বিদেশের মাটিতে একটি টেস্ট সেঞ্চুরি পাননি। সবকটি সেঞ্চুরিই ঘরের মাঠে। একটু তো অবিশ্বাস্যই!

মুমিনুল কি এবার পারবেন? সিরিজ শুরুর আগেই সে প্রশ্ন ঘুরে ফিরছিল সবার মুখে মুখে। মুমিনুলের মনেও কি নয়? তবে আবেগ আর আক্ষেপ ঘুচানোর চাপ নেননি বাংলাদেশ দলপতি। খেলেছেন একদম ভারমুক্ত থেকে। তিন অংকের ম্যাজিক ফিগারটার দেখা পেতে একদমই দুশ্চিন্তাগ্রস্ত দেখা যায়নি তাকে।

দেশের বাইরে মুমিনুলের ফিফটি ছিল ৬টি। যার মধ্যে এই শ্রীলঙ্কার মাটিতে আগের তিন টেস্টেই দুটি (২০১৩ সালে গলে ৫৫ আর কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ৬৪)। এছাড়া ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৪ ম্যাচে দুইবার (২০১৪ সালে কিংসটাউনে ৫১ আর গ্রস ইসলেটে ৫৬) অর্ধশতকে পা রাখার কৃতিত্ব আছে মুমিনুলের।

নিউজিল্যান্ডের মাটিতে তিন টেস্টে একটি (২০১৭ সালে ওয়েলিংটনে ৬৪) এবং দক্ষিণ আফ্রিকায় ২ টেস্টে একটি (২০১৭ সালে পচেফস্ট্রমে ৭৭) পঞ্চাশোর্ধ্ব ইনিংস আছে টাইগার টেস্ট ক্যাপ্টেনের। কিন্তু একবারও পঞ্চাশের বেড়া টপকে তিন অংকে পৌঁছাতে পারেননি।

মুমিনুল কি তবে দেশে বাঘ, বিদেশে বিড়াল? এমন প্রশ্নটা উঠছিল জোরেসোরেই। অবশেষে সেই অপবাদ কাঁধ থেকে নামালেন মুমিনুল। দেশের বাইরেও সেঞ্চুরি করলেন। পাল্লেকেলেতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চলতি টেস্টের দ্বিতীয় দিন এই মাইলফলকে পা রেখেছেন বাঁহাতি এই ‘লিটল ডায়নামো’।

ঘরের মাঠে সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি করে বিদেশে সেঞ্চুরির দেখা পাওয়া ব্যাটসম্যানের রেকর্ডটিও এখন মুমিনুলের দখলে।ঘরে ১০টির পর পেলেন বিদেশে প্রথমটি। তার পরের অবস্থানটি ভারতের রোহিত শর্মার। ঘরের মাঠে ৭টি সেঞ্চুরি করলেও বিদেশে এখনও তিন অংকের ম্যাজিক ফিগারের দেখা পাননি মারকুটে এই ব্যাটসম্যান।

এআরবি/এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]