নিজ দেশের লিগের চেয়ে আইপিএলকেই সেরা মানছেন পাকিস্তানি পেসার

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:৩৫ পিএম, ১৫ মে ২০২১

বিশ্ব ক্রিকেটে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ভুবনজোড়া জনপ্রিয়তার অন্যতম কারণ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ক্রিকেট। ভারতের জমজমাট এই ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্টের কারণেই মূলত ক্রিকেটের কুড়ি ওভারের ফরম্যাট পেয়েছে বাড়তি উন্মাদনা ও জনপ্রিয়তা।

আইপিএলের আগে-পরে অনেক দেশই শুরু করেছে নিজেদের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ লিগ (বিবিএল), ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (সিপিএল), বাংলাদেশের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) কিংবা পাকিস্তানের পাকিস্তান সুপার লিগও (পিএসএল) চলছে সমান তালে।

যে কারণে প্রায় সময়ই চলে আসে একটি লিগের সঙ্গে আরেকটি লিগের তুলনা। বিশেষ করে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশ হওয়ায় পাকিস্তানের পিএসএলের সঙ্গেই যেন তুলনাটা বেশি হয় আইপিএলের। তবে এই আলোচনাকে রীতিমতো উড়িয়েই দিলেন পাকিস্তানের বাঁহাতি পেসার ওয়াহাব রিয়াজ।

তার মতে, আইপিএলের সঙ্গে শুধু পিএসএল নয়, বিশ্বের কোনো দেশের লিগেরই তুলনা করা সম্ভব নয়। সম্প্রতি ক্রিকেট পাকিস্তানকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে আইপিএলের ভূয়সী প্রশংসাই করেছেন ওয়াহাব। একইসঙ্গে ব্যাখ্যা দিয়েছেন, কেনো আইপিএলই অন্য সব লিগের চেয়ে এগিয়ে।

ওয়াহাব বলেছেন, ‘আইপিএল এমন একটা লিগ, যেখানে বিশ্বের সেরা ক্রিকেটার আসে এবং খেলে। আপনি আইপিএল ও পিএসএলের মধ্যে তুলনাই করতে পারেন না। আমি বিশ্বাস করি, আইপিএল পুরোপুরি ভিন্ন একটা পর্যায়ে রয়েছে।’

সেটা কীভাবে? ওয়াহাবের জবাব, ‘আইপিএলের কমিটমেন্ট, তাদের যোগাযোগের পদ্ধতি, যেভাবে দল গোছায়- তা সত্যিই অন্যরকম এক পর্যায়ে আছে। আমার মনে হয় না যে বিশ্বের কোনো লিগ আইপিএলের সঙ্গে দাঁড়াতে পারবে।’

তবে নিজ দেশের লিগকে আইপিএলের ঠিক পরেই রেখেছেন ওয়াহাব। তার ভাষ্য, ‘আইপিএলের পরে যদি কোনো লিগের কথা আসে, সেটা অবশ্যই পিএসএল। পাকিস্তানের এই লিগটি এরই মধ্যে তা প্রমাণ করেছে।’

এসময় আইপিএলের মতো পিএসএলে বেশি রান না হওয়ার কারণ জানিয়ে ওয়াহাব বলেন, ‘পিএসএলে বোলিংয়ের মান অনেক ওপরে। এখানে আপনি যে মানের বোলার পাবেন, তাদের অন্যান্য লিগে পাওয়া যায় না। এমনকি আইপিএলেও না। এ কারণেই পিএসএলে অনেক বেশি রান হয় না। পিএসএলের বোলিং আক্রমণ বিশ্বের সেরা।’

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]