ইমন ঝড়ের পরও মোহামেডানের স্কোর ১৫৪

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৩২ পিএম, ২১ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৮:৩৮ পিএম, ২১ জুন ২০২১

প্রথম লেগে এই প্রাইম ব্যাংকের বিপক্ষে হাফ সেঞ্চুরি করেছিলেন। ৩৮ বলে তিন ছক্কা ও চার বাউন্ডারিতে করেছিলেন ৫০ রান। এরপর আর খবর নেই। পরের ৭ ম্যাচে (০, ০, ১০, ২৬, ১৪, ৯, ৭) তার ব্যাট থেকে আসে মোটে ৬৬ রান। তাই আবাহনীর বিপক্ষে সুপার লিগের প্রথম ম্যাচে ড্রপ করা হয় পারভেজ ইমনকে।

আর আজ সেই প্রাইম ব্যাংকের বিপক্ষে আবার হাসলো পারভেজ ইমনের ব্যাট। যুব বিশ্বকাপ বিজয়ী বাংলাদেশ দলের এ প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যান সোমবার সন্ধ্যায় খেলে ফেললেন ২০ বলে ৪৫ রানের ঝড়ো ইনিংস।

যদিও ওপেনার ইমনের এমন উত্তাল ব্যাটিংয়ের সাথে বাকিরা কেউ তাল মেলাতে পারেননি। পারলে নির্ঘাত ১৭০ প্লাস স্কোর হয়ে যেত মোহামেডানের।

শুরুতে ছিল তেমন আভাস। শূন্য রানে প্রায় আউট হতে বেঁচে যাওয়া পারভেজ ইমন সে প্লাটফর্মই গড়ে দিয়েছিলেন; কিন্তু তারপর আবার মোহামেডান মিডল অর্ডারের খাপছাড়া ব্যাটিং।

আর তাই ২০ ওভার শেষে ১৫৪-তে আটকে যাওয়া। প্রাইম ব্যাংক বাঁ-হাতি স্পিনার মনির হোসেনের করা খেলার প্রথম ওভারে স্লগ করতে গিয়ে আকাশে তুলে দিয়েছিলেন ইমন; কিন্তু শূন্য রানে তার দেয়া সে হাই ক্যাচ ধরতে পারেননি মনির। এরপর শুরু হয় এ বাঁ-হাতি ওপেনারের ছক্কা বৃষ্টি।

পাঁচ-পাঁচটি বিশাল ছক্কা আসে তার ব্যাট থেকে। প্রথম ছক্কার শিকার হন অফস্পিনার নাহিদুল (দ্বিতীয় ওভারে)। পরের ওভারে বাঁ-হাতি স্পিনার মনির হোসেনকে দুই ছক্কা হাঁকিয়ে বসেন।

ঠিক তার পরে ফাস্ট বোলার শরিফুলের এক ওভারে দুটি করে ছক্কা ও চার এবং একটি সিঙ্গেলসসহ ২১ রান তুলে নিয়ে মধ্য চল্লিশে পৌঁছে যান। শেষ পর্যন্ত পারভেজ ইমন ঝড় থামান মোস্তাফিজুর রহমান।

কাটার মাস্টারের বলে অফ সাইডে আক্রমণাত্মক শটস খেলতে গিয়ে মিড অফে ক্যাচ তুলে দেন ইমন। আসলে তখন তাকে বিগ শট হাঁকানোর নেশায় পেয়ে গিয়েছিল। আর তাই মোস্তাফিজ বোলিংয়ে আসার পর তাকেও বিগ হিট নিতে যান।

সে শট মাঝ ব্যাটে হয়নি। মিড অফ ফিল্ডার শরিফুলের মাথার ওপর দিয়ে চলে যাচ্ছিল। শরিফুল অন্তত চার পাঁচ কদম পিছনে দৌড়ে মাথার ওপর দিয়ে এক হাতে ধরে ফেলেন। এরপরই ছন্দপতন।

৫৮ রানে (৫.২ ওভারে) প্রথম উইকেটের পতন আর (৮.৩ ওভারে ৩/৬৭), মজিদ (১৬ বলে ১৪), শামসুর রহমান শুভ (১১ বলে ৩) এবং নাদিফ চৌধুরী (৬ বলে ৩) চরম ব্যর্থ।

নিচের দিকে ইরফান শুক্কুর ১৯ বলে ২ ছক্কায় ২৪ আর অধিনায়ক শুভগত হোম ১৫ বলে ২৫ রানের দুটি মোটামুটি কার্যকর ইনিংস খেললে মোহামেডান দেড়শো’র ঘরে চলে যায়।

মিডল অর্ডার মাহমুদুল হাসান লিমন ৩২ রানে থাকেন নটআউট। ইমন ঝড় থামানো সহ ৪ ওভারে ২২ রানে ২ উইকেট দখল করে প্রাইম ব্যাংকের সফলতম বোলার মোস্তাফিজ। আর দ্রুত গতির বোলার শরিফুল পান ২৭ রানে ২ উইকেট।

এআরবি/আইএইচএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]