‘প্রচণ্ড ঠান্ডায় সাতসকালে উঠে প্র্যাকটিস করেছে ক্রিকেটাররা’

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:১৭ পিএম, ২৭ জুলাই ২০২১

আহমেদ সাজ্জাদুল আলম ববি ক্রিকেটারদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ। ঘুরে ফিরে একটাই কথা তার মুখে, ‘আসলে ক্রিকেটারদের যত প্রশংসা করা যাক না কেন, কম হবে।’

ভাববেন না শুধু টাইগারদের পারফরম্যান্স দেখেই এমন ভূয়সী প্রশংসা জিম্বাবুয়ে সফরে বাংলাদেশ দলনেতার। আহমেদ সাজ্জাদুল আলম ববি আসলে ক্রিকেটারদের টানা জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকার ব্যাপারটিকেও বড় করে দেখছেন।

প্রায় ৫ মাস ঘুরে ফিরে ক্রিকেটারদের এই হোটেলকক্ষে বন্দি জীবন। জীবনের সব আনন্দ-উচ্ছ্বাস, উৎসব বিসর্জন দিয়ে শুধু ঘরের ভেতর আটকে থাকা আর ঘন্টা কয়েকের জন্য অনুশীলন করে মাঠে যাওয়া, ভীষণ কঠিন পরিস্থিতিতে থেকেও খেলার মাঠে সেরাটা দিতে হচ্ছে সবাইকে।

ববি বলেন, ‘এভাবে সব কিছুর বাইরে গিয়ে জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকা বড্ড কঠিন। আমি ক্রিকেটারদের ক্রেডিট দিচ্ছি। তারা এ কঠিন পরিস্থিতির ভেতরেও যতটা সম্ভব স্বাভাবিক থেকে নিজেদের কাজগুলো ঠিকঠাক মত করেছে।’

বিশেষ করে জিম্বাবুয়ের আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে সেখানে সেরাটা দেয়া ছিল ভীষণ কঠিন। টাইগার দলনেতা বলেন, ‘জিম্বাবুয়েতে রাতে প্রচণ্ড ঠান্ডা। কখনও কখনও তাপমাত্রা ১-২ সেলসিয়াসে নেমে এসেছে। কিন্তু এর মধ্যেও দেখি সাতসকালে ৭টার মধ্যে উঠে অনেকেই নিজ উদ্যোগে জিমে গিয়ে ফিজিক্যাল ট্রেনিং করেছে। প্র্যাকটিসে সবাই সিরিয়াস ছিল। কাজেই ক্রিকেটারদের প্রশংসা করতেই হবে।’

এআরবি/এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]