মুখে কুলুপ এঁটে বিমানবন্দর থেকে সোজা টিম হোটেলে টাইগাররা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১২:৪৬ পিএম, ২৯ জুলাই ২০২১

এর আগে কখনই যে কৃতিত্ব অর্জিত হয়নি, এবার জিম্বাবুয়ের মাটিতে স্বাগতিকদের বিপক্ষে সে অধরা কীর্তি গড়ে বিজয়ীর বেশে দেশের মাটিতে পা রেখেছে টাইগাররা।

টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক, ওয়ানডে দলপতি তামিম ইকবালসহ টেস্ট এবং শুধু ওয়ানডে স্পেশালিস্টরা দেশে ফিরেছেন আগেই। এবার ফিরল টি-টোয়েন্টি শেষ করে আসা দলটিও।

বৃহস্পতিবার জিম্বাবুয়ের হারারে থেকে জোহানেসবার্গ, দোহা হয়ে রাজধানী ঢাকায় পা রেখেছে টি-টোয়েন্টি টিম এবং দলের কোচিং ও সাপোর্টিং স্টাফরা।

শুধু ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্স আসেননি। এ দক্ষিণ আফ্রিকান বুধবার হারারে থেকে জোহানেসবার্গে নেমে গেছেন নিজ গন্তব্যে।

তবে দলের সঙ্গে হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো, পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন, স্পিন বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথ, ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক, ফিজিও ও ট্রেনারসহ সবাই ফিরেছেন ঢাকায়।

টেস্ট, ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি তিন ফরম্যাটেই প্রথমবার সিরিজ জিতে ফিরে এসেছে জাতীয় দল। সবার ধারণা, বিমানবন্দরে অনেক হৈ চৈ হয়েছে। উৎসব আনন্দে জাতীয় দলকে বরণ করে নেয়া হয়েছে। বিসিবির পক্ষ থেকে ফুলেল সংবর্ধনায় সিক্ত হয়েছেন ক্রিকেটার, কোচ এবং অফিসিয়ালসরা।

তারপর বিমানবন্দরের ভিভিআইপি লাউঞ্জেই বুঝি সংবাদ সম্মেলনে সাফল্যের সাতকাহন শুনিয়েছেন হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো, পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন আর তিন ফরম্যাটে দলে থাকা দুই সিনিয়র মোস্ট ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ আর সাকিব আল হাসান।

কিন্তু না। বিমানবন্দরে তাদের কেউই কথা বলেননি। ক্রিকেটাররা নিজ নিজ ট্রলি ঠেলে ভিআইপি লাউঞ্জ দিয়ে সোজা বেরিয়ে টিম বাসে গিয়ে উঠেছেন হোটেল ইন্টারকন্টিন্টালের পথে। আসলে তাদের কিছু করারও ছিল না।

jagonews24

অস্ট্রেলিয়ার বেঁধে দেয়া কঠিন শর্তসমূহের মধ্যে পরিষ্কার বলা আছে, অসি ক্রিকেট দল এবং বাংলাদেশের যে বহরটি তাদের (অস্ট্রেলিয়ার) সাথে ৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে মুখোমুখি হবে; সেই দলের কোনো ক্রিকেটার, কোচিং ও সাপোর্টিং স্টাফ প্রকাশ্যে জনসমাবেশে যেতে পারবেন না। মিডিয়ার সাথে দাঁড়িয়েও কথা বলা যাবে না।

পুরো ১০ দিন জৈব সুরক্ষা বলয়ে থেকে তারপর মাঠে নামতে হবে। বলার অপেক্ষা রাখে না, টিম বাংলাদেশ হারারেতে টিম হোটেলে জৈব সুরক্ষা বলয়েই ছিল। সেখান থেকে দেশে ফিরে আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে দেখা না করেই সোজা টিম হোটেল ঢাকা ইন্টারকন্টিনেন্টালে জৈব সুরক্ষা বলয়ে গিয়ে ঢুকেছে। প্রাথমিকভাবে ৩ দিন রুম কোয়ারেন্টাইনেও থাকতে হবে তাদের।

আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল ১১টা নাগাদ জাগো নিউজের সাথে মুঠোফোন আলাপে এ তথ্য দিয়ে বিসিবি হেড অব মিডিয়া রাবিদ ইমাম বলেন, ‘বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সামনে দাঁড়িয়ে ক্রিকেটারদের কথা বলার কোনই উপায় ছিল না। কারণ ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বেঁধে দেয়া কঠিন শর্ত। আমরা দেশে ফিরে সোজা হোটেল রুমে কোয়ারেন্টাইনে চলে এসেছি। এটা বাধ্যতামূলক। এই তিনদিন রুম থেকে বের হওয়াও নিষেধ।’

১ আগস্ট একবারে প্র্যাকটিসে যাবে টিম বাংলাদেশ। তার আগে নিজ নিজ হোটেল রুমে আটকা থাকতে হবে সবাইকে। কাজেই বিমানবন্দরে কিংবা টিম হোটেলে কারো সাথে কথা বলার কোনোই অবকাশ নেই।

বলে রাখা ভালো, জিম্বাবুয়ে থেকে দেশে ফেরার পর টিম বাংলাদেশের হয়ে শুধু একজন উপস্থিত মিডিয়ার সাথে কথা বলেছেন। তিনি আহমেদ সাজ্জাদুল আলম ববি, যিনি জিম্বাবুয়ে সফরে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের টিম লিডার হয়ে।

ববি মিডিয়ার সামনে আসতে এবং কথা বলতে পেরেছেন, কারণ তিনি হোটেলে টিম বাংলাদেশের সাথে থাকবেন না। অস্ট্রেলিয়ার সাথে টি-টোয়েন্টি সিরিজে টিম বাংলাদেশের অফিসিয়ালস নন তিনি। তাই ববি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সোজা ধানমন্ডি নিজ বাসায় চলে গেছেন।

এআরবি/এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]