‘অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে প্রথম বল থেকেই সেরা ক্রিকেট খেলতে হবে’

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৪০ পিএম, ০২ আগস্ট ২০২১

ইতিহাস সাক্ষী দিচ্ছে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে অস্ট্রেলিয়ার সাথে আগে কখনো জেতেনি বাংলাতেদশ। চারবার খেলে প্রতিবারই হেরেছে টাইগাররা। কাকতালীয়ভাবে প্রতিবার অসিদের সাথে টাইগারদের দেখা হয়েছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে।

এর মধ্যে ২০১৪ সালে ঘরের মাটিতেও অস্ট্রেলিয়ার সাথে ৭ উইকেটে হেরেছে। তবে দু’বছর পর ২০১৬ সালের মার্চে ভারতের ব্যাঙ্গালুরু অস্ট্রেলিয়ার সাথে লড়ে তিন উইকেটে হার মানে টাইগাররা এবং টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে সেটাই ছিল অস্ট্রেলিয়ার সাথে বাংলাদেশের শেষ ম্যাচ।

এবার ঘরের মাঠে পাঁচ পাঁচটি টি-টোয়েন্টি। অস্ট্রেলিয়াও তুলনামূলক কমজোরি দল। অনেকেরই মত অসিদের হারানোর এটাই সেরা সুযোগ। আসলেই কী তাই? টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও কী মনে করেন?

সোমবার জুম কনফারেন্সে এমন প্রশ্নর উত্তরে রিয়াদ বলেন, ‘সেরা সুযোগ কি না সেটা এ মুহূর্তে বলাটা কঠিন। কারণ তারা (অস্ট্রেলিয়ানরা) অতি ভালো একটি দল। ভালো ক্রিকেট খেলেই ওদেরকে হারাতে হবে।’

রিয়াদের অনুভব, অসিদের বিপক্ষে নিজেদের সাফল্যর পূর্বশর্ত হলো নিজেদের স্কিলগুলো ভালভাবে মাঠে সময়মত প্রয়োগ করা। ‘আমরা আামাদের স্কিলগুলো কত ভালোভাবে ম্যাচের দিন প্রয়োগ করতে পারি। ম্যাচের কন্ডিশন ও পরিস্থিতি অনুযায়ী আমরা নিজেদের কতটা এপ্লাই করতে পারি। ওই জিনিসগুলোর ওপরও অনেককিছু নির্ভর করে। আমার মনে হয় খুব ভালো একটা সিরিজ হবে। আলহামদুলিল্লাহ আমরা জিম্বাবুয়েতে পুরো সিরিজজুড়ে ভালো ক্রিকেট খেলেছি। আমাদের আত্মবিশ্বাসও আছে। আমরা অপেক্ষায় আছি যেন আমরা আমাদের সেরা ক্রিকেটটা খেলতে পারি।’

বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি ক্যাপ্টেন মনে করেন, ‘বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিপক্ষে পাঁচটি ম্যাচ খেলার সুযোগ, অনেক। তার ভাষায় স্কিল দেখানোর এটা বড় সুযোগ।’

এই সিরিজটি জিততে পারলে দল হিসেবে তার দলের মনোবল হবে অনেক চাঙ্গা। সাহস ও নিজেদের সামর্থ্যের ওপর আস্থাও বাড়বে বহুগুনে। সে উপলব্ধি থেকেই রিয়াদ বলেন, ‘আমাদের মনোবল আরও বাড়িয়ে দেবে।’

বিশ্বের অন্যতম সেরা দলকে হারাতে নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলার বিকল্প নেই। একথা বলতে ভুল হয়নি তার। ‘আমাদের প্রথম বল থেকে সেরাটাই খেলতে হবে।’

অনেকেই বলেন, বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের অ্যাপ্রোচটা ঠিক টি-টোয়েন্টি উপযোগি না। এই ফরম্যাটে বাংলাদেশ তত কার্যকর দল না। অধিনায়ক রিয়াদ অবশ্য তা মনে করেন না। তার ব্যাখ্যা, ‘আমি মনে করি আমাদের টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের অ্যাপ্রোচের সঙ্গেও যায়। আমাদের স্কিলফুল ব্যাটসম্যান বেশ আছে। স্মার্ট চয়েসগুলো আমাদের বেছে নিতে হবে। পার্টিকুলার কন্ডিশনে নির্দিষ্ট বোলারদের নিয়েও আমরা টিম মিটিংয়ে কথা বলেছি। কিভাবে আমরা প্রয়োগ করতে পারি সঠিক সময়ে।’

এআরবি/আইএইচএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]