এক লাফে আট নম্বরে আফ্রিদি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:২৭ এএম, ২৫ আগস্ট ২০২১

দ্বিতীয় টেস্টে পাকিস্তানের জয়ের নায়ক তিনি। দুই ইনিংসে ১০ উইকেট নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ধসিয়ে দেন শাহিন শাহ আফ্রিদি। দুর্দান্ত বোলিংয়ের সুবাদে আইসিসি টেস্ট বোলার  র‍্যাংকিংয়েও বড় লাফ দিয়েছেন বাঁহাতি এই পেসার।

প্রথমবারের মতো টেস্ট বোলার র্যাংকিংয়ে সেরা দশে ঢুকে পড়েছেন শাহিন আফ্রিদি। ৭৮৩ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে এখন তিনি আট নম্বরে। পাকিস্তানি বোলারদের মধ্যে তিনিই এখন সেরা।

জ্যামাইকায় রীতিমত অপ্রতিরোধ্য ছিলেন আফ্রিদি। বাঁহাতি এই গতিতারকা দুই টেস্টে নেন ১৮ উইকেট। তার নিকট প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের জেডেন সিলস। তবে তিনি অনেক পেছনে, পেয়েছেন ১১ উইকেট।

প্রথম টেস্টে ৮ উইকেট পাওয়া আফ্রিদি দ্বিতীয় টেস্টে ক্যারিয়ারসেরা বোলিং ফিগারের (১০/৯৪) দেখা পান। তার এমন বোলিংয়ে ভর করেই সাবিনা পার্কে ১০৯ রানের বড় জয় পেয়েছে পাকিস্তান।

দুই টেস্টের চার ইনিংসে প্রায় প্রতি চার ওভারে একটি করে উইকেট তুলে নিয়েছেন আফ্রিদি। গড় ছিল মাত্র ১১.২৭। ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাতজন ব্যাটসম্যানকে কমপক্ষে দুইবার করে আউট করেছেন এই পেসার। ক্যারিবীয় উইকেটরক্ষক জসুয়া ডি সিলভাকে চার ইনিংসে আউট করেছেন তিনবার। বলতে গেলে একাই এই সিরিজে স্বাগতিকদের কোণঠাসা করে রেখেছিলেন আফ্রিদি।

এদিকে দারুণ নেতৃত্বে সমতায় সিরিজ শেষ করা বাবর আজম বরাবরের মতো ব্যাট হাতেও ছিলেন উজ্জ্বল। চার ইনিংসের সবকটিতেই ত্রিশোর্ধ্ব রান করেছেন তিনি। সাবিনা পার্কের কঠিন কন্ডিশনে ফিফটি করেছেন দুইবার।

সবমিলিয়ে ৪৮.২৫ গড়ে ১৯৩ রান করেছেন বাবর, যা কিনা এই সিরিজে দুই দলের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বোচ্চ। টেস্ট ব্যাটসম্যান র্যাংকিংয়েও এক ধাপ এগিয়েছেন পাকিস্তানি অধিনায়ক, আট থেকে চলে এসেছেন সাত নম্বরে।

এদিকে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে হার না মানা ১২৪ রানের ইনিংস খেলা ফাওয়াদ আলম ৩৪ ধাপ এগিয়েছেন ব্যাটসম্যান র্যাংকিংয়ে। ২১তম অবস্থানে আছেন পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান, যা কিনা তার ক্যারিয়ারের সেরা র্যাংকিং।

এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]