বিসিবিতে কমে যাচ্ছে মোহামেডান কোটার পরিচালক!

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০২:১৮ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

হোক তা বোর্ড পরিচালক পর্ষদের, তারপরও নির্বাচন তো! আর নির্বাচন মানেই নানা রকম হিসেব-নিকেশ ও সমীকরণ, পরিবেশ-প্রেক্ষাপট আর উদ্ভূত পরিস্থিতি মিলিয়েই নির্বাচনী প্রক্রিয়া। একদম ভোটের আগের রাতেও পাল্টে যায় চালচিত্র।

বিসিবির নির্বাচনেও সময়ের প্রবাহতার সঙ্গে সঙ্গে অতি নাটকীয় বা চমকপ্রদ ঘটনা ঘটে যেতে পারে। এখন যাদের না থাকার কথা শোনা যাচ্ছে আর তাদের বদলে যাদের নতুন কমিটিতে জায়গা পাওয়ার কথা ক্রিকেটপাড়ায় গুঞ্জন, সেখানেও কিছু রদবদলের আভাস মিলেছে। ভেতরে ভেতরে কিছু নতুন সমীকরণ পাল্টে ফেলার পরিকল্পনাও নাকি আছে। এরই মধ্যে তেমন আভাসও মিলেছে।

একদম ভেতরের খবর, মোহামেডানের কাউন্সিলরশিপ পেলেও বিসিবির নতুন পরিচালনা পর্ষদে থাকার সম্ভাবনা কম মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের ক্রিকেট কমিটির প্রধান মাসুদুজ্জামানের।

বলে রাখা ভালো, মোহামেডানের কোটায় গতবার কাউন্সিলর হওয়া লোকমান হোসেন ভূঁইয়া এবার ক্লাবের নতুন পরিচালক পর্ষদে নেই। তার বদলে নারায়নগঞ্জের গার্মেন্টস ব্যবসায়ী, মোহামেডানের বর্তমান ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান মাসুদুজ্জামানকে সাদা কালো শিবির থেকে কাউন্সিলর করা হয়েছে।

মোহামেডানের পরীক্ষিত সৈনিক, বিসিবির অন্যতম সিনিয়র পরিচালক মাহবুব আনামের সঙ্গে মাসুদ্দুজামানের নাম কাউন্সিলর হিসেবে পাঠিয়েছে মোহামেডান। যেহেতু গতবার মোহামেডান কোটায় মাহবুব আনাম আর লোকমান হোসেন ভূঁইয়া বোর্ড পরিচালক ছিলেন, তাই স্বাভাবিকভাবেই ধরা হয়েছিল এবার মাহবুব আনামের সঙ্গে মোহামেডান কাউন্সিলর হিসেবে মাসুদুজ্জামানও বোর্ড পরিচালক হিসেবে অটো চয়েজ থাকবেন।

কিন্তু একদম নির্ভরযোগ্য সূত্রের খবর, সম্ভাব্য পরিচালকদের তালিকায় নাম নেই মাসুদুজ্জামানের। ওদিকে আরেক মোহামেডান অন্তঃপ্রাণ হানিফ ভূঁইয়ারও নাকি এবার বোর্ডে থাকার সম্ভাবনা খুব কম। যদিও হানিফ ভূঁইয়া তার নিজ ক্লাব প্রথম বিভাগের দল র‌্যাপিড ফাউন্ডেশনের কাউন্সিলর হয়েছেন। তারপরও তার এবার বোর্ডে থাকা নিয়ে আছে রাজ্যের সংশয়। উচ্চ পর্যায়ের একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে হানিফ ভূঁইয়াকে বাইরে রেখেই ক্লাব কোটায় বোর্ড পরিচালক পদে মনোনয়ন প্রায় চ্যড়ান্ত।

তার মানে ধরেই নেয়া যায় প্রায় একযুগ মোহামেডানের মতো বড় ও জনপ্রিয় দলের ক্রিকেট দল গড়ার অন্যতম নৈপথ্য কারিগড় হানিফ ভূঁইয়া আগামীতে বোর্ডে থাকছেন না। পাশাপাশি মোহামেডান ক্রিকেট কমিটির প্রধান চেয়ারম্যান মাসুদুজ্জামানও যদি জায়গা না পান, তাহলে মোহামেডানের কোটায় পরিচালক পর্ষদের সদস্য আগের চেয়ে কমে দাঁড়াবে মাত্র একজনে; মাহবুব আনাম।

দেশের সবচেয়ে বড় স্পোর্টস ইভেন্ট ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থায় মোহামেডানের মত জনপ্রিয় আর বড় শিবিরের একজন মাত্র পরিচালক থাকার অর্থ ক্রিকেটের অগ্রযাত্রায় মোহামেডানের সম্পৃক্ততা কমে যাওয়া। অথচ আসন্ন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের জন্য সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদসহ একঝাঁক তারকা ক্রিকেটার নিয়ে দল সাজিয়েছে মোহামেডান। এখন বোর্ডে তাদের মাত্র একজন পরিচালক দেয়া কতটা শোভন বা যৌক্তিক- তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়।

এআরবি/এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]