হাসান মুরাদের স্পিন ঘূর্নিতে ম্লান শান্ত-মুমিনুলের জোড়া ফিফটি

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১০:১১ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১
ফাইল ছবি...।

বাবার অসুস্থতার কারণে প্রথম ৪ দিনের ম্যাচ খেলা সম্ভব হয়নি। তার বদলে এইচপি একাদশের সাথে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন মোহাম্মদ মিঠুন। তবে জাগো নিউজকে জানিয়েছিলেন, দ্বিতীয় ও পরের ম্যাচ খেলবেন।

যে কথা সেই কাজ। দ্বিতীয় ৪ দিনের ম্যাচটি ঠিকই খেলতে নেমেছেন মুমিনুল হক। শুধু খেলেনইনি। আজ বুধবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে হাই পারফরমেন্স (এইচপি) ইউনিটের বিপক্ষে ব্যাট হাতে নেমে হাফ সেঞ্চুরি করেছেন বাংলাদেশ টেস্ট ক্যাপ্টেন।

অধিনায়ক মুমিনুলের পাশাপাশি বাঁ-হাতি নাজমুল হোসেন শান্তর ব্যাটও কথা বলেছে। প্রথম ম্যাচে ৪ রানের জন্য শতরান করতে না পারা শান্ত এদিনও শতরানের সম্ভাবনা জাগিয়েছিলেন। পরে ২৮ রান দুরে থাকতে ফিরে গেছেন সাজঘরে।

এদিকে শান্ত আর মুমিনুলের জোড়া হাফ সেঞ্চুরিরর পরও বড় সড় স্কোর গড়তে পারেনি ‘এ’ দল। এইচপির বাঁ-হাতি স্পিনার হাসান মুরাদের স্পিন ঘূর্ণির মুখে ২২৩ রান করতেই ‘এ’ দল হারিয়েছে ৯ উইকেট।

বাঁ-হাতি স্পিনার হাসান মুরাদ একাই ৪৭ রানে ৫ উইকেটের পতন ঘটিয়েছেন। শান্ত ৭২ আর মুমিনুলের ৬২ রানের ইনিংস দুটি ছাড়া ‘এ’ দলের আর কেউ মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেননি। ওপেনার সাইফ হাসান (২), সাদমান ইসলাম (৬), মোহাম্মদ মিঠুন (৫), ইয়াসির আলী (০) ও ইরফান শুক্কুর (০) ব্যর্থতার মিছিলে অংশ নিয়েছেন।

তবুও রক্ষা অফস্পিনার নাইম হাসান ( ৩২) আর পেসার শহিদুল শেষ দিকে হাত খুলে দলকে ২০০ পার করে দিয়েছেন। শহিদুল ৪ ছক্কা ও ২ বাউন্ডারিতে ৩১ বলে ৩৬ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন।

ওদিকে বাঁ-হাতি স্পিনার হাসান মুরাদের ঘূর্ণি বলে মিডল অর্ডারে মড়ক লাগলেও এ দলকে ব্যাকফুটে ঠেলে দেন এইচপির বাঁহাতি পেসার সুমন খান। এ দলের দুই ওপেনার সাইফ ও সাদমান আউট হন সুমন খানের বলে।

সাইফ স্লিপে ক্যাচ দেন আর সাদমান ড্রাইভ করতে গিয়ে ধরা পড়েন পয়েন্টে। ১১ রানে দুই ওপেনার আউট হবার পর ৮৮ রানের জুটি গড়ে শুরুর ধাক্কা সামলে দিয়েছিলেন শান্ত আর মুমিনুল। শান্ত একদিক আগলে রাখার কাজটি করেন। আর টেস্ট ক্যারিয়ারের সবচেয়ে পয়োমন্তঃ ভেন্যু জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বেশ সাবলীল ছিল মুমিনুলের ব্যাট।

এইচপি পেসার রেজাউরের বাউন্সারে স্লিপে ক্যাচ তুলে দেন মুমিনুল। এরপর মিঠুন , ইয়াসির আলী রাব্বি ও ইরফান শুক্কুর আউট হন হাসান মুরাদের বলে।

এআরবি/আইএইচএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]