মা-বাবাকে মূল কৃতিত্ব দিয়ে টেস্টকে বিদায় বললেন মঈন

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৪৬ পিএম, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে নিলেন ইংল্যান্ডের স্পিন অলরাউন্ডার মঈন আলি। সোমবার দুপুরে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন মঈন নিজেই।

ইংল্যান্ডের হয়ে ৬৪টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন মঈন আলি। যেখানে ব্যাট হাতে ৫ সেঞ্চুরি ও ১৪ ফিফটিতে ২৯১৪ রান এবং বল হাতে পাঁচবার ৫ উইকেটসহ ১৯৫ উইকেট শিকার করেছেন তিনি।

টেস্ট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়ে মঈন বলেছেন, ‘আমার বয়স এখন ৩৪ এবং আর যতদিন আমি খেলবো পুরোটা উপভোগ করতে চাই। টেস্ট ক্রিকেট অসাধারণ। আপনি যখন ভালো দিন কাটাবেন, সেটি অন্য যেকোনো ফরম্যাটের চেয়ে বেশি আনন্দের। মনে হয় যেনো, আপনি এটা অর্জন করে নিয়েছেন।’

তিনি যোগ করেন, ‘আমি ছেলেদের সঙ্গে মাঠে নামা মিস করবো। বিশ্বের সেরাদের সঙ্গে খেলাটা মিস করবো। যেখানে নার্ভের পরীক্ষা দিতে হতো এবং আমি জানতাম যে নিজের সেরা ডেলিভারি দিয়ে বিশ্বের যে কাউকে আউট করতে পারবো।’

আর মাত্র ৮৬ রান ও ৫ উইকেট নিলেই ৩০০০ রান ও ২০০ উইকেটের ক্লাবে প্রবেশ করতেন মঈন। এর অপেক্ষা না করার ব্যাখ্যায় তিনি বলেন, ‘আমি টেস্ট ক্রিকেট উপভোগ করেছি। কিন্তু এর গভীরতা প্রায়ই অনেক বেশি হয়। আমি মনে করি, যথেষ্ঠ করেছি এবং আমি যা করতে পেরেছি তা নিয়েই সন্তুষ্ট।’

এসময় কোচ-অধিনায়কদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘পিটার মুরস এবং ক্রিস সিলভারউডকে ধন্যবাদ জানাই আমার কোচ হওয়ায়। মুরসের অধীনে আমার অভিষেক। কুক এবং রুটের নেতৃত্বে আমি খেলেছি। তাদের অধীনে খেলা উপভোগ করেছি এবং আশা করি আমি যেভাবে খেলেছি তাতে তারা খুশি।’

নিজের ক্যারিয়ারের পূর্ণ কৃতিত্ব বাবা-মাকে দিয়ে মঈন বলেন, ‘আমার বাবা-মা সেরা। আমি অনুভব করি যে তাদের সমর্থন ছাড়া আমি এতো দূর আসতে পারতাম না। আমার প্রতিটি ম্যাচ তাদের জন্য খেলেছি এবং আমি জানি তারা সত্যিই আমার জন্য গর্বিত।’

ভাই-বোনের কাছ থেকে পাওয়া সমর্থনও ভোলেননি তিনি, ‘আমার ভাই-বোন আমার খারাপ দিনে আমাকে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে। আমার স্ত্রী এবং বাচ্চাদের আত্মত্যাগের জন্য আমি সত্যিই কৃতজ্ঞ। তারা সবাই আমার এই পথচলায় অসাধারণ ভূমিকা পালন করেছে, আমি যা করেছি আমি তাদের জন্য করেছি।’

এসএএস/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]