সৌরভ গাঙ্গুলির ঘনিষ্ঠ বন্ধু মিঠু এবার বিসিবি নির্বাচনে

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:২২ পিএম, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

বিসিবির নির্বাচনের তোড়জোড় শুরুর অল্প কিছুদিন আগের কথা। ক্রিকেট ক্লাব পাড়ায় মৃদু গুঞ্জন, ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটের প্রতিষ্ঠিত ও অন্তঃপ্রাণ সংগঠক ইফতেখার রহমান মিঠুও এবার বিসিবি পরিচালক পদে নির্বাচন করবেন।

যদিও আগে কখনো বিসিবির পরিচালক ছিলেন না, তারপরও সেই ৯০ দশকের একদম শুরু থেকে বিসিবির বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য হিসেবে কাজ করেছেন। ১৯৯৭-১৯৯৮‘তে ঢাকায় হওয়া ইন্ডিপেন্ডেন্টস কাপ ৯৮’র মিনি বিশ্বকাপের স্থানীয় আয়োজক কমিটির অন্যতম সক্রিয় ও অতি কার্যকর সদস্য হিসেবে কাজ করেছেন মিঠু। এছাড়া ২০১২-১৩ সালের এশিয়া কাপের ইভেন্ট কো-অর্ডিনেটরের দায়িত্বও পালন করেছেন।

সেই ১৯৮০ সালে আজাদ স্পোর্টিংয়ের হয়ে শুরু খেলোয়াড়ি জীবন। তারপর ওয়ারী হয়ে গুলশান ইয়ুথে যোগদান। সেই ক্লাব থেকেই খেলা ছেড়ে সংগঠক হিসেবে আত্মপ্রকাশ।

৮০’র দশকের পুরো সময় থেকে ৯০-৯২ অবধি ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটে দুই ভারতীয় টেস্ট ক্রিকেটার অরুণ লাল আর অশোক মালহোত্রাও গুলশান ইয়ুথের হয়ে ঢাকা ক্লাব ক্রিকেটে অংশ নিয়েছেন। তাদের ঢাকায় আনা এবং দীর্ঘ সময় খেলানোর পুরো দায়িত্বটাই পালন করেন এই ইফতেখার রহমান মিঠু।

বোর্ডে না থাকলেও ক্রিকেট থেকে কখনও দূরে সরে যাননি মিঠু। সবসময় কোনো না কোনোভাবে সম্পৃক্ত ছিলেন। আছেনও। ক্রিকেটারদের ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন কোয়াবের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তিনি। অতি সম্প্রতি আত্মপ্রকাশ করা পিচ ফাউন্ডেশনেরও অন্যতম স্বপ্নদ্রষ্টা এবং শীর্ষ কর্তা এই ইফতেখার মিঠু।

কাজেই তার যা যোগ্যতা, ক্লাব ও দেশের ক্রিকেটে যে সম্পৃক্ততা, তাতে তিনি বিসিবি পরিচালক পদে নির্বাচন করতেই পারেন। কিন্তু এবারের নির্বাচনে মিঠুর নির্বাচন করা নিয়ে কিছু কথাও চাউর হয়েছে। যার একটি ছিল, তিনি ভারতের কিংবদন্তি অধিনায়ক ও বর্তমান বোর্ড সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলির খুব ঘনিষ্ঠ বন্ধু। মহারাজের সাথে তার সম্পর্কটা একদমই ব্যক্তিগত পর্যায়ের।

সবচেয়ে বড় কথা, সৌরভ ভারতীয় জাতীয় দলে খেলার আগে থেকেই মিঠুর সঙ্গে তার পরিচয়। সৌরভের বড় ভাই পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক স্নেহাশীষ গাঙ্গুলির সঙ্গেও মিঠুর সখ্য অনেক পুরনো। তার হাত ধরেই ১৯৮৯ ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে গুলশান ইয়ুথের পক্ষে এক ম্যাচ খেলেছেন স্নেহাশীষ।

ভারতের জাতীয় দলে ঢোকার পর সৌরভ গাঙ্গুলি যতবার ঢাকা এসেছেন, একবেলার জন্য হলেও মিঠুর বাড়িতে আমন্ত্রণ পেয়েছেন বিসিসিআইয়ের বর্তমান সভাপতি।

তবে কোনো কোনো মহলে এমন কথা চাউর হয়েছে যে, মিঠু সৌরভের আশীর্বাদপুষ্ট এবং তার পরোক্ষ সমর্থন নিয়েই বিসিবিতে নির্বাচন করতে আসছেন। তিনি যে বোর্ড পরিচালক পদে নির্বাচন করতে যাচ্ছেন, তা খুব ভালো জানেন সৌরভ।

গতকাল (সোমবার) বিকেলে বিসিবিতে মনোনয়নপত্র দাখিলের পর উপস্থিত সাংবাদিকদের সাথে আলাপে অনেক কথার ভিড়ে মিঠু জানিয়েছেন, ‘আপনারা সাংবাদিকদের কেউ কেউ যেমন আমার বন্ধু, সৌরভ গাঙ্গুলিও আমার বন্ধু। তিনি আমাকে শুভকামনা জানিয়েছেন।’

এদিকে জাগো নিউজের সাথে একান্ত আলাপে মিঠু জানান, চলতি মাসের ১১ তারিখে তিনি মহারাজকে নির্বাচন করার বিষয়টি অবহিত করেছেন।

মিঠু বলেন, ‘তিনি (সৌরভ) আমাকে শুভকামনা জানিয়েছেন। বলেছেন, আমার ক্রিকেটের প্রতি যে ভালবাসা এবং ক্রিকেটের সাথে যেমন আন্তরিক সখ্য, তাতে আমার মত মানুষের বিসিবিতে আসা উচিত।’

এআরবি/এমএমআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]