সাকিবদের বিপক্ষে বিব্রতকর রেকর্ড মোস্তাফিজদের

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:০২ পিএম, ০৮ অক্টোবর ২০২১

বৃহস্পতিবার রাতে কলকাতা নাইট রাইডার্সের কাছে ৮৬ রানের বড় পরাজয় দিয়ে নিজেদের আইপিএল মিশন শেষ করেছে রাজস্থান রয়্যালস। এই পরাজয়ের মাধ্যমে একগাদা বিব্রতকর রেকর্ডে নাম তুলেছে বাংলাদেশের কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমানের দল। যদিও ব্যাট হাতে অপরাজিত ছিলেন মোস্তাফিজ।

ম্যাচটিতে কলকাতার করা ১৭১ রানের জবাবে রাজস্থান অলআউট হয়েছে মাত্র ৮৫ রানে। এর আগের ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের বিপক্ষে মোস্তাফিজরা করতে পেরেছিলেন মাত্র ৯০ রান। অর্থাৎ দুই ম্যাচ মিলে তাদের মোট সংগ্রহ ১৭৫ রান। যা কি না আইপিএলের দলগুলোর মধ্যে দুই ম্যাচে সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড।

এতদিন ধরে এই রেকর্ড ছিলো কোচি তাস্কার্স কেরালার নামে। তারা ২০১১ সালের আসরে পরপর দুই ম্যাচে ১০৯ ও ৭৪ রান করেছিলো। এছাড়া ২০১৭ সালে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু ৪৯ ও ১৩৪ রানে অলআউট হয়ে দুই ম্যাচে ১৮৩ রানের রেকর্ড গড়ে। সেটি এখন চলে গেলো রাজস্থানের দখলে।

আইপিএলে নিজেদের সর্বোচ্চ ব্যবধানে হারের রেকর্ডটিও কলকাতার বিপক্ষে ম্যাচে করলো রাজস্থান। এর আগে ২০০৯ সালে ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে ১৩৪ রান তাড়ায় ৭৫ রানের ব্যবধানে হেরেছিলো আইপিএলের প্রথম আসরের চ্যাম্পিয়নরা। অন্যদিকে কলকাতার এটি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের ব্যবধানে জয়।

এই ম্যাচে মাত্র ৩৫ রানেই ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিলো রাজস্থান। আইপিএল ইতিহাসে এর আগে এতো কম রানে ৭ উইকেট হারায়নি আর কোনো দল। এর আগে ২০১৭ সালে কলকাতার বিপক্ষে ৪২ রানে ৭ উইকেট হারিয়েছিলো ব্যাঙ্গালুরু। সেদিন তারা অলআউট হয়েছিলো ৪৯ রানে।

এ নিয়ে ষষ্ঠবারের মতো প্রতিপক্ষকে ১০০ রানের আগেই অলআউট করলো কলকাতা। এছাড়া মুম্বাই ইন্ডিয়ানস ও ব্যাঙ্গালুরুও তাদের প্রতিপক্ষকে ছয়বার ১০০ রানের নিচে অলআউট করেছে।

এসএএস/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]